প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নাগরিক টিভিতে ‘শ্বশুর আলয় মধুর আলয়’

নাগরিক টিভিতে ‘শ্বশুর আলয় মধুর আলয়’আবু সুফিয়ান রতন: নতুন টেলিভিশন চ্যানেল নাগরিক টিভিতে প্রচারিত হতে যাচ্ছে ধারাবাহিক নাটক ‘শ্বশুর আলয় মধুর আলয়’।

নাটকটি প্রচার উপলক্ষে ১৮ ফেব্রুয়ারি বেলা ১২টায় বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র ভবনের সম্মেলন কক্ষে এক সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সংবাদ সম্মেলনে নাগরিক টেলিভিশনের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা আব্দুন নূর তুষার, নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান কামরুজ্জামান বাবু উপস্থিত ছিলেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন নাটকটির লেখক আনিসুল হক, ডিরেক্টরস গিল্ডস-এর সভাপতি গাজী রাকায়েত ও জ্যেষ্ঠ সাংবাদিক জাহীদ রেজা নুর।

নাটকের অভিনয় শিল্পীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন দিলারা জামান, শহীদুজ্জামান সেলিম, আদনান ফারুক হিল্লোল, রাহুল আনন্দ, মৌটুসি বিশ্বাস, সাদিয়া জাহান প্রভা ও অপর্না ঘোষ। দেশের বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমের প্রতিনিধিরা এ সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনের শুরুতে সদ্য প্রয়াত সাংবাদিক জুটন চৌধুরির স্মরণে এক মিনিট নিরবতা পালন করা হয়।

একান্নবর্তী পরিবারের হাসি আনন্দ সুখ দুঃখের গল্পে নির্মিত নাটকটির পরিচিতিমূলক এ অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য রাখেন নাগরিক টিভির প্রধান পরিচালন কর্মকর্তা ডা. আব্দুন নূর তুষার ।

তিনি বলেন, “নাগরিক টিভি নিজেকে দেশের বর্তমান কোনো চ্যানেলের প্রতিদ্বন্দ্বী মনে করে না, নাগরিক টিভির লড়াই বিদেশী আকাশ সংস্কৃতির সঙ্গে।”

টিভি দর্শকদের চাহিদা সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “আমাদের দর্শকরা অন্য দেশের চ্যানেল দেখেন কিন্তু পাশের বাড়ির ছেলেটি বা মেয়েটির সঙ্গেই তাদের ভালবাসা হয়। তাই নাগরিক টিভি আমাদের নিজেদের জীবনের গল্পই এ নাটকে তুলে ধরেছে, যা দর্শক অবশ্যই গ্রহণ করবে।”
‘শ্বশুর আলয় মধুর আলয়’ নাটকের লেখক আনিসুল হক বলেন, “নাটকের সফলতার পেছনে লেখকের চেয়ে পরিচালকের ভূমিকা বেশি।”

তিনি নাটকটির পরিচালক আলভী আহমেদকে ধন্যবাদ জানান, কারণ তিনি নিজগুণে নাটকটি চমৎকার করে তুলেছেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন, যেহেতু দর্শক নাটকে নিজের জীবন দেখতে পাবেন, তাই তারা নাটকটি অবশ্যই গ্রহণ করবেন।

সংবাদ সম্মেলন সঞ্চালনা করেন নাগরিক টিভির অনুষ্ঠান বিভাগের প্রধান কামরুজ্জামান বাবু। তিনি সঞ্চালনার ফাঁকে ফাঁকে নাটক তৈরির পেছনের অনেক গল্প সাংবাদিকদের সামনে তুলে ধরেন।

ডিরেক্টরস গিল্ডস-এর সভাপতি গাজী রাকায়েত বলেন, “শ্বশুর আলয় মধুর আলয় নাটকটি দেখে তার কাছে এটি নিছক কমেডি নাটক মনে হয়নি।”

সংলাপের গভীরতা ও কলাকুশলীদের অভিনয় দক্ষতার জন্য তিনি নাটকটির লেখক আনিসুল হকসহ সবাইকে ধন্যবাদ দেন।

তিনি আরও বলেন, “ধারাবাহিক নাটক আবারও কীভাবে জনপ্রিয় করা যায় তা সবাইকে নতুন করে ভাবতে হবে।”

অভিনেত্রী দিলারা জামান নাটকের শ্যুটিং চলাকালীন স্মৃতিচারণ করে জানান, তার দৃঢ় বিশ্বাস, দর্শক নাটকটি অবশ্যই গ্রহণ করবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত