প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ধর্ষণ মামলায় কারাবন্দি তারিক রামাদান হাসপাতালে

ডেস্ক রিপোর্ট : ইসলামিক স্কলার তারিক রামাদান কারাগারে অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। দুটি ধর্ষণ মামলায় তারিক রামাদানকে এ মাসের শুরুর দিকে রিমান্ডেও নেয়া হয়েছিল।

তারিক রামাদানের মুক্তির দাবিতে ক্যাম্পেইন চালিয়ে আসা একটি ওয়েবসাইট শনিবার বলেছে, তার পরিবার অসুস্থতার বিষয়টি জানতে পেরেছে।

শুক্রবার তাকে হাসপাতালে নেয়া হয়েছে বলে মামলা সংশ্লিষ্টদের বরাত দিয়ে ফরাসী গণমাধ্যমও জানিয়েছে।

ফ্রি তারিক রামাদান সাইটে আপলোড করা এক ভিডিওতে তার ফরাসী স্ত্রী ইমান বলেছেন, তারিক রামাদান ‘দীর্ঘ মেয়াদি রোগে’ আক্রান্ত হয়েছেন, যার চিকিৎসা হাসপাতালে পর্যাপ্ত নয়।

সুইস নাগরিক তারিক রামাদানের নানা ছিলেন মিশরের মুসলিম ব্রাদারহুডের প্রতিষ্ঠাতা হাসান আল-বান্না। গত ২০০৯ এবং ২০১২ সালে ফ্রান্সে হোটেল কক্ষে দুই মুসলিম নারীকে ধর্ষণের অভিযোগ আনা হয় তারিক রামাদানের বিরুদ্ধে।
হেন্দা আয়ারি নামে একজন নারীবাদী যিনি একসময় কট্টর ইসলামী অনুশাসন মেনে চলতেন, তিনি ২০১৬ সালে ‘আমি মুক্ত হতে পছন্দ করি (আই চুজ টু বি ফ্রি)’ শিরোনামে তার বইয়ে প্রতীকী নামে তারিক রামাদানের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ আনেন। গত অক্টোবরে মূলহোতা হিসেবে তার নাম প্রকাশ করেন ওই নারীবাদী।

তারিক রামাদানের বিরুদ্ধে দুটি ধর্ষণ মামলায় প্রাথমিক চার্জ গঠন করা হয়। বিদেশে পালিয়ে যেতে পারেন অথবা নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক অপর অভিযোগকারী নারীকে চাপ প্রয়োগ করতে পারেন এমন আশঙ্কায় তাকে আটক রাখার নির্দেশ দেন একটি আদালত।

তবে তারিক রামাদান দৃঢ়ভাবে তার বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তারিক রামাদানের কড়া সমালোচকদের সঙ্গে অভিযোগকারী দুই নারীর নিয়মিত যোগাযোগের বিষয়টি সম্প্রতি গণমাধ্যমে ফাঁস করে দেন তার সমর্থকরা।

বৃহস্পতিবার তারিক রামাদান অ্যাম্বুলেন্সে করে আদালতে হাজির হন। পরে ফরাসী আপিল আদালত তার স্বাস্থ্যের অবস্থা মূল্যায়নের নির্দেশ দেন। একই সঙ্গে মামলার কার্যক্রম ২২ ফেব্রুয়ারি নাগাদ মুলতবি রাখেন। সূত্র: পরিবর্তন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত