প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

থাইল্যান্ডে পাহারাদারের দায়িত্ব পালন করবে কুকুর

সজিব সরকার: থাইল্যান্ডে প্রায় ৮০লাখ কুকুর রাস্তাঘাটে চলাচল করে, যার মধ্যে শুধুমাত্র রাজধানী ব্যাংককেই ৮লাখ কুকুর রয়েছে। স্বাভাবিকভাবেই মানুষের রোগের কারণ হওয়া এবং মানুষকে বিভিন্নভাবে হয়রানি করার কারণে এসব কুকুরকে নিয়ে অশান্তিতে থাকে স্থানীয় জনগণ। কিন্তু থাইল্যান্ড সরকার একটি প্রতিষ্ঠানকে সাথে নিয়ে কুকুরগুলোর শরীরে ক্যামেরাযুক্ত ডিভাইস যুক্ত করে তাদেরকে পাহারাদার হিসেবে ব্যবহার করছে।

তাদের শরীরে একটি জ্যাকেট পরানো হয়েছে এবং এটিতে একটি ক্যামেরাযুক্ত ডিভাইস লাগানো আছে। এর ফলে সারা শহরে বিভিন্ন রাস্তাঘাটে কুকুরগুলো চলাচল করলে সেসব রাস্তাঘাটের ভিডিও ফুটেজ পাবে স্থানীয় কর্তৃপক্ষ। কুকুরের ক্যামেরায় ধরা পড়ার ভয়ে অপরাধ থেকে দূরে থাকবে অপরাধীরা। তাছাড়া কোথাও কোন দুর্ঘটনা ঘটলে তা অতিদ্রæত জানা যাবে। এমনকি দুর্ঘটনার কারণও জানা সম্ভব তাদের শরীরে লুকায়িত ক্যামেরা দ্বারা। সামনে খারাপ কিছু দেখলে চিৎকার করাটা কুকুরের একটি স্বভাব, অনেকসময় কুকুরের চিৎকারের মাধ্যমে অতিদ্রæত কোন বিপদজনক বিষয় শনাক্ত করা যাবে।

থাইল্যান্ডের ‘এসওএস এনিমেল’ সংস্থার কর্মকর্তা ডায়িন পিচারাত বলেন, ‘থাইল্যান্ডের বেশিরভাগ মানুষ কুকুরকে বিপজ্জনক মনে করে। একারণে কুকুররা প্রয়োজনীয় যত্ন ও খাবার পায় না। এ প্রক্রিয়া চালু হওয়ার কারণে তারা এখন আমাদের জন্য অনেক উপকারী প্রাণীতে পরিণত হবে এবং আমরাও তাদের যত্ন করতে আগ্রহী হবো। ইওন টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত