প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একজন অভিনেতা হতে হলে থিয়েটার করা লাগবে

মানিক মানবিক : আমি যখন প্রথম ঢাকাতে আসি, তখন থেকেই আমার একটা ইচ্ছা ছিল, আমি কোন সিনেমা বা নাটকের অভিনেতা হব। কিন্তু সহজে অভিনেতা হওয়া সম্ভব হয় না। আমি চেষ্টা করতে থাকি। প্রথমে শুরুটা করেছিলাম ঢাকার বিভিন্ন থিয়েটার এর সঙ্গে। অভিনেতা না হওয়ার কিছু কারণ ছিল। প্রথমে অভিনয় করতে গেলে আমাকে কেউ টাকা দিবে না, আমাকে ফ্রি কাজ করতে হবে, আমার নিজে চলতে হবে, আমার ফ্যামিলিতে কিছু কন্ট্রিবিউট করতে হবে। তখন আমি চিন্তা করলাম, আমি ক্যামেরার সামনে কাজ করতে না পারি, কিন্তু ক্যামেরার পিছনে কাজ করতে পারি। তখন ১৯৯৭ সালে প্রখ্যাত পরিচালক বেলাল আহম্মেদ এর সাথে সহকারি নাট্যকার হিসাবে কাজ শুরু করি।

নাট্যকার হিসাবে কাজ শুরু করার আগে থেকে আমি বিভিন্ন পত্রিকায় কন্ট্রিবিউটর হিসাবে কাজ করতাম। বিভিন্ন নাটকের কন্ট্রাক পেজে কাজ করতাম। এভাবে কাজ করতে করতে আমি কয়েকটি নাটক লিখি এবং ১টি নাটক বেলাল আহম্মেদকে দেখালাম। তিনি বললেন, এ গল্প থেকে নাটক তৈরি সম্ভব হবে। তখন সে গল্প থেকে নাটক তৈরি করা হয়। সেই নাটকটি ১৯৯৮ সালে বিটিভিতে প্রচার করা হল। তখন আমার নিজের ভিতরে নাট্যকার হিসাবে কনফিডেন্স কাজ করল।

আমি অল্প অল্প করে নাটক লেখা শুরু করলাম। যে নাটকগুলো তৈরি করেছিলাম, সেগুলো এনটিভি চ্যানেলে প্রচার হতে শুরু হয়। এ নাটকগুলোর গ্রহণযোগ্যতা বাজারে বৃদ্ধি পেলো। যখন নাট্যকার হিসাবে পরিচিতি বৃদ্ধি পায়, এটিএন বাংলায় আমার খুবই একটি জনপ্রিয় নাটক হয়েছিল, নাটকের নাম ছিল সামছুদ্দিনের একুশ। সামছুদ্দিনের একুশ নামে এ নাটকটি প্রচার হয়েছিল ২০০৮ সালে।

তখন থেকে একজন নাট্যকার হিসাবে আরো পরিচিতি বৃদ্ধি পেয়েছে। আমার ছোট বেলা ইচ্ছা ছিল যে, আমি ভবিষ্যতে নাট্যকার বা অভিনেতা হব। নাট্যকার জীবনকে বেছে নেওয়ার একটি কারণ এটি স্বাধীন একটি পেশা। আমি যে জিনিস চিন্তা করি সেটি বাস্তবে প্রমাণ করি। আমি বতর্মানে একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করেছি, চলচ্চিত্রটির নাম শোভনের স্বাধীনতা। অনেক গুলো নাটক তৈরি করেছি।

পরিচিতি : নাট্যকার/ মতামত গ্রহণ : রাশিদুল ইসলাম মাহিন/সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত