প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ম্যাজিস্ট্রেটের সামনেই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে দুই সংবাদিক লাঞ্ছিত (ভিডিও)

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া : মেয়াদোত্তীর্ণ রি-এজেন্ট (রোগ নির্ণয়ের জন্য রাসায়নিক উপাদান) এবং অনুমোদনহীন ওষুধ রাখায় রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। আর ভ্রাম্যমাণ আদালতের এই অভিযানের সময় দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেটের সামনেই অ্যাপোলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের হাতে লাঞ্ছনার শিকার হলেন বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলের দুই সংবাদকর্মী।

অ্যাপোলো হাসপাতালের সম্মান ক্ষুণœ হবে এমন অজুহাতে সংবাদ সংগ্রহে বাধা দেওয়ার এই ঘটনা খোদ ভ্রাম্যমাণ আদালতের সামনেই। এটিএন বাংলার রিপোর্টার ও ক্যামেরাপারসনকে যখন লাঞ্ছিত করছিলো অ্যাপোলো কর্তৃপক্ষ, তখন নিরাপত্তার বাহানায় বাকি গণমাধ্যমকর্মীদের ঢুকতেই দেওয়া হয়নি অ্যাপোলো হাসপাতালে। ঘন্টার পর ঘন্টা দাঁড়িয়ে থাকলেও শুধু একটি চ্যানেল ছাড়া বাকি গণমাধ্যমকর্মীদের হাসপাতালের ভেতরে নিতে পারেনি র‌্যাব সদস্যরা।

গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর ও ওষুধ প্রশাসনের যৌথ অভিযান ছিল রাজধানীর অ্যাপোলো হাসপাতালে। অভিযান শেষে নানা অভিযোগে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করা হয় অ্যাপোলোকে।

দায়িত্বরত ম্যাজিস্ট্রেট বলেন, ডায়াগনোসিসের বিভিন্ন ধরনের টেস্ট করা হচ্ছে। সেইখানে একটা মেশিনের মেয়াদ উর্ত্তীর্ণ হয়েছে প্রায় ৪মাস আগে। এইখানে কিছু ওষুধ পাওয়া গেছে যেগুলো বাংলাদেশে অনুমোদন পায়নি। এখানে কয়েকজন উত্তেজিত হয়ে গণমাধ্যমকর্মীদের আসতে দিতে বাধা দিচ্ছিল। সেটার সুরাহা করা হয়েছে। এছাড়া কেউ যদি খারাপ ব্যবহার করে সেটা আমরা দেখবো।

তবে ভুক্তভোগীরা বলেন, হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ যখন লাঞ্ছিত করছিলেন তখন র‌্যাব সদস্যরা কোনো ভূমিকাই নেননি। খুবই উত্তেজিত হয়ে পরে তারা। আমার ব্যাগ ধরে টান দিল। সাংবাদিকদের ক্যামেরা টেনে ঢেকে দিয়েছে।

এসব বিষয়ে কথা বলতে চাইলে কথা বলতে রাজি হয়নি অ্যাপোলো হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। এর আগে বহুবার হাসপাতালটির বিরুদ্ধে নানা অভিযোগ তোলেন রোগী ও স্বজনরা।

এ সময় বিভিন্ন অভিযোগে অ্যাপোলো হাসপাতালকে ৫ লাখ টাকা জরিমানা করে ভ্রাম্যমাণ আদালত। তবে এ বিষয়ে মুখ খোলেনি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

সূত্র : সময় টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত