প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জাতীয় মৌ মেলা চলবে মঙ্গলবার পর্যন্ত

মতিনুজ্জামান মিটু : আনুষ্ঠানিকভাবে শেষ হয়েছে ‘জাতীয় মৌ মেলা ২০১৮’। তবে দর্শনার্থীদের চাহিদা ও অংশগ্রহনকারীদের অনুরোধে মেলার আয়ু বেড়েছে আরও একদিন।

মঙ্গলবার দুপুর ১২টা পর্যন্ত চলবে এ মেলা। ‘ফসলের মাঠে মৌ পালন, অর্থ পুষ্টি বাড়বে ফলন’ এই প্রতিপাদ্যে রাজধানীর ফার্মগেটের আ. কা. মু গিয়াস উদ্দিন মিল্কি অডিটরিয়াম চত্বরের বসে দু’দিনের এই মেলা।

গত রবিবার (১৮ ফেব্রুয়ারি) প্রধান অতিথি হয়ে এসে কৃষি মন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী এ মেলা উদ্বোধন করেন। কৃষি মন্ত্রণালয়ের দ্বিতীয় বারের এ মেলায় রেকর্ড সংখ্যক সরকারি বেসরকারি ৫৪টি প্রতিষ্ঠানের ৬০টি স্টল অংশ নেয়। বিপুল সংখ্যক দর্শক গত দু’দিন মেলায় এসে তুলনামুলক কম দামে পছন্দের খাটি মধু সংগ্রহ করেন। এই দুই দিনে মেলায় ১১ লাখ টাকার মধু বিক্রি হয়।

সোমবার(১৯ ফেব্রুয়ারি) মেলার নির্ধারিত সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কৃষিমন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (সম্প্রসারণ) মো. মোশারফ হোসেন বলেন, আমাদের আবাদী জমি কমছে। কৃষিকে ভর্টিক্যালি কিভাবে বাড়ানো যায়, সে বিষয়ে চিন্তা ভাবনা চলছে। খাদ্য উৎপাদনের পাশাপাশি সুষম খাবারের সাথে নিরাপদ ও পুষ্টি সমৃদ্ধ খাবার গ্রহন করতে হবে। মৌ চাষ সম্প্রসারণ, প্রক্রিয়াজাত ও বিপননের ক্ষেত্রে রোডম্যাপ তৈরী করতে হবে।

কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কৃষিবিদ মো. আব্দুল আজিজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যন্যের মধ্যে বক্তব্য দেন, ডিএই’র সরেজমিন উইংয়ের পরিচালক মো. আবদুল হান্নান, ডাল, তেল ও পেয়াজ বীজ উৎপাদন ও বিতরণ প্রকল্প (২য় পর্যায়) এর প্রকল্প পরিচালক মো. নজরুল ইসলাম, ডাল, তেল ও মসলা বীজ উৎপাদন ও বিতরণ প্রকল্প (৩য় পর্যায়) এর প্রকল্প পরিচালক মো. খায়রুল আলম ও মৌ চাষী কল্যান সমিতির সভাপতি মো. এবাদুল্লাহ আফজাল।স্বাগত বক্তব্য দেন কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের হর্টিকালচার উইং এর পরিচালক মিজানুর রহমান।

সমাপনী অনুষ্ঠানের প্রধান অতিথি মেলায় অংশগ্রহনকারী স্টলগুলোর মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন। সরকারি পর্যায়ে কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তর প্রথম, বাংলাদেশ ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প কর্পোরেশন (বিসিক) দ্বিতীয় এবং কৃষি তথ্য সার্ভিস তৃতীয় পুরস্কার পায়। বেসরকারি পর্যায়ে আল ওয়ান মধু প্রথম, সলিড মধু দ্বিতীয় এবং স্বদেশী মধু তৃতীয় হয়েছে। মেলায় অংশগ্রহনকারী অন্য সব প্রতিষ্ঠানকেও পুরস্কৃত করা হয়। ১৮ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া এ মেলা ১৯ ফেব্রুয়ারি শেষ হওয়ার কথা ছিল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত