প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘বিলম্বকরণ হয়রানির একটা উপায়’ : ড. রেজওয়ান সিদ্দিকী

মারুফ হাসান নাসিম : রায় যখন তৈরি হয়ে যায়, রায়ের প্রত্যয়িত কপি ওইদিনই অথবা তার পরের দিন পাওয়া যায়। কিন্তু রায়ের প্রত্যয়িত কপি এখনো দেওয়া হচ্ছে না। সরকারের মন্ত্রীরা বলছে, যখন জজ যুক্তিসংগত মনে করবেন তখনই রায়ের কপি দিবেন। জজ কী করবেন, না করবেন তাতে মন্ত্রীর কী। অর্থাৎ এ থেকেই বুঝা যায় যে, এই রায়ে সরকারের হাত আছে। এই যে রায়ের প্রত্যয়িত কপি দিতে বিলম্বকরণ, এটা হয়রানি করার একটা উপায়। যাতে খালেদা জিয়া জামিনের আবেদন করে দ্রুত বের হতে না পারে। এই বিলম্বকরণেই প্রশ্ন উঠছে যে, রায় আসলে লেখাই হয়নি। খালেদা জিয়া রায়ের প্রত্যয়িত কপি দিতে বিলম্বকরণের ব্যাপারে আলাপকালে দৈনিক দিনকালের সম্পাদক ড. রেজওয়ান সিদ্দিকী আমাদের অর্থনীতিকে এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, তারা যদি রায়ের প্রত্যয়িত কপি সঙ্গে সঙ্গে দিয়ে দিতো তাহলে এরকম কথা উঠতো না। এখন মনে হচ্ছে সরকারের প্রভাবের কারণেই এই কপি পেতে বিলম্ব হচ্ছে। এর মাধ্যমে সরকার খুব বেশি কিছু অর্জন করবে বলে মনে হয় না। এতে সরকারের অর্জনের চেয়ে ক্ষতিই বেশি হবে। যেমন, বিএনপি যেভাবে শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি করছে, এসব কর্মসূচিতে বিএনপি আসলে আরও বেশি সাংগঠনিক হচ্ছে। আগে যে সাংগঠনিক দুর্বলতা ছিল তা এখন কাটিয়ে উঠছে।

শীর্ষ নেতৃবৃন্দের মধ্যে যে মতবিরোধ ছিল তা এখন নেই বললেই চলে। বিএনপি এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচির কারণে সরকারের আশা পূরণ হয়নি। কারণ ওবায়দুল কাদের যেভাবে বলেছেন, বিএনপি আন্দোলন করার সক্ষমতা নেই। আর সক্ষমতা নেই বলেই তাদের এই শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি। এগুলো হলো এক ধরনের রাজনৈতিক সংকীর্ণমনতা। এর মাধ্যমেই সরকারের মনোভাব সম্পূর্ণভাবে বুঝা যায় যে তারা কী চায়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত