প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শিশুর মৃত্যু, অথচ পরিবার জানে না কারণ!

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর কাকরাইল এলাকার একটি বাসা থেকে সাইফুল ইসলাম সাগর (১০) নামে এক শিশুকে মুমূর্ষু অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন। তবে মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে পরিবারের লোকজন কিছুই জানাতে পারেনি।

শনিবার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে কাকরাইল পাইওনিয়ার গলির একটি বাসায় এ ঘটনা ঘটে।

জানা যায়, নিহত সাগর নোয়াখালী জেলার সোনাইমুড়ি উপজেলার পদিপাড়া গ্রামের আমেরিকা প্রবাসী সৈয়দ আহমেদ রিপনের ছেলে। সে পরিবারের সঙ্গে কাকরাইল পাইওনিয়ার গলির একটি বাসার দ্বিতীয় তলায় ভাড়ায় থাকতো।

নিহতের মা শ্যামলী আক্তার বলেন, এক ছেলে এক মেয়ের মধ্যে সাগর বড়। সে কাকরাইল কিডস ইন্টারন্যাশনাল স্কুলের ২য় শ্রেণিতে পড়তো। সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে বাথরুমে ঢুকে সাগর। প্রায় আধঘণ্টা ধরে বাথরুম থেকে বের না হলে দরজা ধাক্কা দেওয়া হয়। কোনো সাড়াশব্দ না পেয়ে দরজা ভেঙে তাকে অচেতন অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে আসলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

কিন্তু কিভাবে ওই শিশুর মৃত্যু হয়েছে তা সঠিকভাবে জানাতে পরেনি স্বজনরা।

ঢামেক হাসপাতালের জরুরি বিভাগের মেডিকেল অফিসার ডা. নূর-ই আলম বলেন, সাগরকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়েছিলো। শিশুটির গলায় দাগ পাওয়া গেছে। এটি পুলিশ কেস বিষয়টি পুলিশ দেখবে।

ঢাকা মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ি ইনচার্জ উপ-পরিদর্শক (এসআই) বাচ্চু মিয়া বলেন, ময়নাতদন্তের জন্য মরদেহ হাসপাতাল মর্গে রাখা হয়েছে।বাংলানিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত