প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হীরা ব্যবসায়ী মোদির ভারতীয় পাসপোর্ট স্থগিত

ইমরুল শাহেদ : ভারতের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় চার সপ্তাহের জন্য হীরা ব্যবসায়ী নীরব মোদি ও তার চাচা মেহুল চক্সির পাসপোর্স স্থগিত করেছে। পাঞ্জাব ন্যাশনাল ব্যাংক এই দুইজনের বিরুদ্ধে সেন্ট্রাল ব্যুরো অব ইনভেস্টিগেশন (সিবিআই)-এর কাছে ১১ হাজার তিনশ’ কোটি রুপি জালিয়াতির অভিযোগ করেছে। তার সঙ্গে রয়েছে ব্যাংকের জুনিয়র কর্মচারিও।

তবে বার্তা সংস্থা চ্যানেল নিউজ এশিয়া জানিয়েছে, ভারতীয় পুলিশ ইতোমধ্যেই পাঞ্জাব ব্যাংকের তিনজন কর্মচারিকে গ্রেফতার করেছেন। তাদের বিরুদ্ধে ব্যাংকের অর্থ জালিয়াতিতে মোদিকে সহযোগিতা করার অভিযোগ আনা হয়েছে। ভারতের ইকোনোমি টাইমস জানিয়েছে, মোদির অন্য দেশের নাগরিকত্বও থাকতে পারে। হতে পারে অন্য দেশে তার বাড়িও রয়েছে। মোদি, তার স্ত্রী এমি, ভাই নিশাল, চাচা ও ব্যবসায়ী অংশীদার মেহুল চোক্সি জানুয়ারি মাসের প্রথম সপ্তাহেই ভারত ত্যাগ করেছে। তাকে সর্বশেষ দেখা গিয়েছিল সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে অনুষ্ঠিত ওয়ার্ল্ড ইকোনোমিক ফোরামের (জানুয়ারি ২৩ থেকে ২৬) বার্ষিক সম্মেলনে।

তবে তাদের পাসপোর্ট কেন বাতিল করা হবে না তা মন্ত্রণালয়কে জানাতে বলা হয়েছে দুই এক সপ্তাহের মধ্যে। মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যদি তাদের কোনো সাড়া না পাওয়া যায় তাহলে ধরে নেওয়া হবে তারা আলোচনার জন্য প্রস্তুত নন এবং পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সেভাবেই তাদের বিরুদ্ধে এগিয়ে যাবে।’

নিরব মোদির স্ত্রী এমি যুক্তরাষ্ট্রের নাগরিক এবং ভাই নিশাল বেলজিয়ামের নাগরিক। বলতে গেলে সারা বিশ্বেই তাদের যাতায়াত রয়েছে। তিনি বেশির ভাগ সময় অতিবাহিত করেন যুক্তরাষ্ট্রে। তার সহযোগীদের কেউ কেউ বলেছেন, তিনি বিভিন্ন দেশে যাতায়াতের জন্য বেলজিয়ামের পাসপোর্টই ব্যবহার করেন। তারা বলেছেন, মোদি মাঝে-মধ্যেই ভারতে আসতেন। কিন্তু গত দুই বছর তাকে ভারতে আসতে দেখা যায়নি। একজন সহযোগী বলেছেন, ‘তিনি প্রায়ই বলতেন ভারতে যাওয়ার মতো সময় তার হাতে নেই। সবার সঙ্গে ফোনে কথা হয়। সেজন্য দূরত্ব অনুভব করেন না।’
সূত্র : ইকোনোমিক টাইমস

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত