প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কি শিখিয়েছিলাম আর কী খেলছো, টাইগারদের হাথুরুসিংহে

নিজস্ব প্রতিবেদক : বাংলাদেশের পারফরম্যান্স নিয়ে নিজের হতাশা প্রকাশ করতে যেয়ে শ্রীলঙ্কান কোচ ও বাংলাদেশের সাবেক কোচ চন্ডিকা হাথুরুসিংহে বলেন, ‘আমি মনে করি না তারা ভীত। ত্রিদেশীয় সিরিজের শুরুটা তারা দুর্দান্ত করেছিল। শুরুতে তারা দুই দলকেই চাপে রেখেছিল। কারণ তারা জানত কিভাবে খেলতে হবে। আমার মনে হয় কিছু ম্যাচে ব্যর্থ হওয়ার পর নিজেদের সামর্থ্যের উপর নিজেরাই সন্দেহ তৈরি করে। সত্যি বলতে আমি নিজেও বিস্মিত! তাদের পারফরম্যান্স দ্রুত খারাপ হওয়ায় আমি অবাক।’

তিনি এমনভাবেই বলেন যে, কি শিখিয়েছিলাম আর কী খেলছো? তিন বছরের শিক্ষা কি তিনমাসেই ভুলে গেল কিভাবে! সাবেক শিষ্যদের টানা তিন ফরম্যাটের হার দেখে আসলেই হতাশ টাইগারদের সাবেক গুরু।

বলার অপেক্ষা রাখেনা প্রাক্তন শিষ্যদের থেকে হাথুরুসিংহে আরও ভালো ক্রিকেটের খোঁজে ছিলেন। প্রত্যাশা করেছিলেন কঠিন প্রতিদ্বন্দ্বীতার। কিন্তু তামিম-মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা তাকে হতাশ করেছেন। বাংলাদেশের সাফল্যের পথে কাঁটা হয়ে তো ছিলেন হাথুরুসিংহে নিজেও!

বাংলাদেশে কাটানো সাড়ে তিন বছরে ক্রিকেটারদের প্রত্যেকের খুঁটিনাটি জানতেন হাথুরুসিংহে। তামিম-মুশফিকরা কোথায় দূর্বল তার থেকে ভালো আর কে বলতে পারবেন? দূর্বল জায়গায় মলম তো তিনিই লাগিয়েছিলেন। মুস্তাফিজ-রুবেলদের শক্তির জায়গা কোনটা, কোন সময়ে কোন বল করতে পছন্দ করেন সেটাও রয়েছে তার মস্তিষ্কে। স্বাভাবিকভাবেই এটা বড় অ্যাডভান্টেজ। ঠিক ‘পরীক্ষায় বসার আগে প্রশ্নপত্র হাতে পাওয়ার’ মতো ঘটনা।

এ সুবিধার সদ্ব্যবহার তো হাথুরুসিংহেও করেছেন। স্বীকার করতে পিছু কার্পণ্য করেননি শ্রীলঙ্কান এ কোচ। বললেন,‘সত্যি বলতে হ্যাঁ বাংলাদেশ দল সম্পর্কে আমার ধারণা অনেক উপকার করেছে। আমরা বেশি কিছু খেলোয়াড় সম্পর্কে নির্দিষ্ট পরিকল্পনা করেই মাঠে নেমেছিলাম। আমরা জানতাম চাপের সময়ে তারা কিভাবে প্রতিক্রিয়া দেখাবে।’

‘তারা প্রথম দুই ম্যাচে ভালো করেছিল যেটা প্রত্যাশিত ছিল। যদি প্রথম দুই ম্যাচে তারা খারাপ করতো তাহলে আরও হতাশ হতাম। আমি এতোটা খারাপ অবস্থায় তাদেরকে রেখে আসিনি। আমি তাদের পারফরম্যান্সে তখন খুশি হয়েছি এবং তারা যেভাবে মানিয়ে নিয়েছিল তাতেও সন্তুষ্ট ছিলাম।’ – যোগ করেন হাথুরুসিংহে।

প্রাক্তন শিষ্যরা তাকে হতাশ করলেও বর্তমানদের নিয়ে হাথুরুসিংহে বেশ সন্তুষ্ট। এবার শেষটাও রাঙাতে চান লঙ্কান কোচ,‘আমরা এখানে কোনো ম্যাচ হারতে আসিনি। জয় দিয়ে শেষ করা উদ্দীপক হিসেবে কাজ করবে। এখন পর্যন্ত পুরো সফর নিয়ে আমি সন্তষ্ট।’

দুই দল দ্বিপাক্ষিক সিরিজের শেষ ম্যাচে রোববার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে মাঠে নামবে বিকেল পাঁচটায়। প্রথম টি-টোয়েন্টি ৬ উইকেটে জিতে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে শ্রীলঙ্কা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত