প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

সামরিক প্রশিক্ষণ দিতে সৌদিতে সেনা যাবে: দাবি পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রীর

ওমর শাহ: সামরিক প্রশিক্ষণ ও পরামর্শ মিশনে সৌদিতে সেনা পাঠানো হচ্ছে দাবি করেছেন পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রী খুররম দস্তগীর খান। শুক্রবার রাতে জিও নিউজের একটি টকশোতে অংশ নিয়ে তিনি এ কথা জানান। এরআগে সৌদিতে সেনা প্রেরণ বিষয়ে জানতে আগামী সোমবার তাঁকে সিনেটে তলব করা হয়েছে। শুক্রবার সিনেট চেয়ারম্যান রাজা রব্বানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে সংসদের উচ্চকক্ষে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেন।

শুক্রবার সিনেটর ফরহাতুল্লাহ বাবর সৌদি আরবে সেনা পাঠানোর বিষয়টিকে জনগুরুত্বপূর্ণ ইস্যু হিসেবে তুললে চেয়ারম্যান রাজা রব্বানি পাক প্রতিরক্ষামন্ত্রীর প্রতি এ নির্দেশ জারি করেন। সেনা পাঠানোর বিষয়ে সিদ্ধান্ত মুলতবি করার জন্যও বাবর নোটিশ দিয়েছেন।

পাকিস্তানের আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর বা আইএসপিআর বৃহস্পতিবার সৌদি আরবে সেনা পাঠানোর কথা ঘোষণা করে। ফরহাতুল্লাহ বাবর জানান, সেনাপ্রধান জেনারেল কামার জাভেদ বাজওয়া ও ইসলামাবাদে নিযুক্ত সৌদি রাষ্ট্রদূতের মধ্যে বৈঠকের পর এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। এর আগে জেনারেল বাজওয়া তিনবার সৌদি আরব সফর করেন এবং গত দুই মাসে তিনি দু বার সৌদি সফরে যান। গোপন এসব সফরের সময় তিনি সৌদি যুবরাজ মুহাম্মাদ বিন সালমানের সঙ্গে বৈঠক করেন।

পাকিস্তান থেকে কত সেনা পাঠানো হবে তা না জানা না গেলেও খবর বের হয়েছে যে, এক ডিভিশনের কিছু কম সেনা পাঠানো হবে।

ফরহাতুল্লাহ বাবর বলেন, ইয়েমেনে সৌদি সামরিক অভিযানের কারণে দেশটিতে সেনা না পাঠানোর বিষয়ে সংসদে সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু কিন্তু এখন কে সংসদকে পাশ কাটিয়ে এককভাবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন? এরপর চেয়ারম্যান রাজা রব্বানি প্রতিরক্ষামন্ত্রীকে তলবের নির্দেশ জারি করেন। সূত্র: জিও নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত