প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অবৈধ অস্ত্র কারখানায় সরব কক্সবাজারের মহেশখালি দ্বীপ

হ্যাপী আক্তার : কক্সবাজারের দ্বীপ জনপদ মহেশখালিতে আবারও সরবর অবৈধ অস্ত্র কারখানাগুলো। দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় গড়ে ওঠা এসব কারখানায় গোপনে তৈরি হচ্ছে নানা ধরনের অস্ত্র। দেশের বিভিন্ন স্থানে শত শত অবৈধ অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছে কক্সবাজারের মহেশখালি থেকে। একে-৪৭ এর মতো অত্যাধুনিক অস্ত্র তৈরি করা হচ্ছে এই কারখানাগুলোতে।

দেশের একমাত্র পাহাড়ি দ্বীপ কক্সবাজারের মহেশখালি। পর্যটনসহ নানা ঐতিহ্যের জন্য বেশ সুনাম আছে এই জনপদের। কিন্তু পাশাপাশি খ্যাতি পেয়েছে অস্ত্র তেরির জন্যও। রাত হতেই যেন ব্যস্ততা বাড়ে অস্ত্র তৈরির কারিগরদের। দুর্গম পাহাড়ের ভ্রাম্যমান কারখানায় তৈরি হচ্ছে একনালা বন্দুক, দুনালা বন্দু, কাতা বন্দুক, পিস্তল ও রাইফেলসহ শত শত অবৈধ অস্ত্র।

দেশের বিভিন্ন স্থানে শত শত অবৈধ অস্ত্র সরবরাহ করা হচ্ছে কক্সবাজারের মহেশখালি থেকে। জাতীয়সহ যেকোন নির্বাচনে অবৈধ অস্ত্রের চাহিদা বেড়ে যায় দ্বিগুনেরও বেশি। তাই মহেশখালির কারখানাগুলো এখন সরবর। অস্ত্র তৈরির সাথে সম্পৃক্তরা জানালেন, রাজনৈতিক নেতা, সন্ত্রাসী, জলদস্যু ছাড়াও রোহিঙ্গারা উচ্চ মূল্যে মহেশখালি থেকে কিনে নিচ্ছে অস্ত্র।

জানা যায়, পুরো দ্বীপের পাহাড়ি এলাকায় অস্ত্র তৈরির কারখানা আছে কমপক্ষে হলেও অর্ধশত। যা জানে আইনশৃংখলা বাহিনীও। শুধু ছোট অস্ত্রই নয় একে-৪৭ মতো অত্যাধুনিক অস্ত্র তৈরির সক্ষমতা আছে বলেও দাবি অস্ত্র কারিগরের।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি ড. মনির উজ জামান বলেন, মহেশখালিতে অস্ত্র তৈরির কারখানায় প্রতিনিয়তই অভিযান চালানো হচ্ছে। সামান্যতম কোনো ইঙ্গিত যদি পাওয়া যায় সেখানে অভিযান চালনো হয়।

বিভিন্ন অপরাধে ব্যবহার হওয়া ছোট অস্ত্রের বড় অংশই আসে এই মহেশখালি থেকে সরবরাহ হয় বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।

সূত্র : চ্যানেল টোয়েন্টিফোর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত