প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে পুলিশের উদ্দেশ্যমূলক মামলার অভিযোগ

ইসমাঈল হুসাইন ইমু : রাজধানীর কোতয়ালী থানা ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক সাইফুল ইসলাম সাগর, তার বাবা ও পাঁচ ভাইয়ের বিরুদ্ধে পুলিশ কর্তৃক মিথ্যা মামলা দায়ের ও বাসা বাড়ি ভাঙচুরের প্রতিবাদ জানিয়েছে তার পরিবার।

বুধবার সকালে বাংলাদেশ ক্রাইম রিপোর্টার্স এসোসিয়েশন মিলনায়তনে এ প্রতিবাদ জানান সাগরের মা নাজমা বেগম।

লিখিত বক্তব্যে তিনি জানান, তার স্বামী একজন কাগজ ব্যবসায়ী। ছয় ছেলে ও একটি মেয়ে রয়েছে তাদের। তার ছেলে সাইফুল ইসলাম সাগর কোতয়ালী থানা ছাত্রলীগের সিনিয়র যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক। সংগঠনের সকল কর্মকান্ডেই তার স্বত:স্ফুর্ত অংশগ্রহণের কথা এলাকার সকলেই জানে। কিন্তু দু:খের বিষয় হলো কোতয়ালী থানা ছাত্রলীগের সভাপতি নুরুল আমিন (নুরু) ষড়যন্ত্র করে পুলিশের যোগসাজশে সাগরের বিরুদ্ধে মিথ্যা বানোয়াট দুটি বিষ্ফোরক মামলা দেয়। শুধু তাই নয় পুলিশ তার স্বামী ও সব ছেলের বিরুদ্ধে একাধিক মামলা দিয়েছে। এছাড়া একের পর এক মামলা দেওয়ার পাশাপাশি বিভিন্নভাবে হুমকি দিচ্ছে তারা। এ কারণে গোটা পরিবার নিয়ে চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন নাজমা বেগম ও তার পরিবার।

তিনি বলেন পুলিশের দেয়া মিথ্যা মামলায় বর্তমানে তার তিন ছেলে কারাগারে রয়েছ। তিনি দাবি করেন ছেলের নামে রাজনৈতিক মামলা দিচ্ছে পুলিশ। অথচ তার ছেলে সাইফুল ইসলাম সাগর ছাড়া অন্যরা রাজনীতির সঙ্গে জড়িত না। এছাড়া তাদের বিরুদ্ধে দেশের কোথাও অন্য কোনো মামলা নেই বলে দাবি করেন নাজমা বেগম।

তিনি আরও জানান, গত ৭ ফেব্রুয়ারি তার পুরান ঢাকার বাসায় ঢুকে মালামাল তছনছ করে পুলিশ। এসময় তার ছোট ছেলে ইসমাইলকে ধরে নিয়ে তার বিরুদ্ধে মিথ্যা ভাংচুর ও বিষ্ফোরক মামলা দেয় এবং রিমান্ডে এনে নির্যাতনের ভয় দেখিয়ে থানার এসআই জলিল, মোটা অংকের টাকা দাবি করে। টাকা না দিলে আরও মামলা দেয়ার হুমকি দেয়।

নাজমা বেগম অভিযোগ করেন, কোতয়ালী থানার এএসআই ইউসুফ এবং এএসআই একরাম প্রায়ই তার বাসায় গিয়ে জানান, তাদের সঙ্গে সুসম্পর্ক রাখতে হবে। এক্ষেত্রে তাদের প্রতিমাসে একটা মোটা অংকের টাকা দিতে হবে। তাহলে তার স্বামী ও ছেলেদের বিরুদ্ধে কোন মামলা দেয়া হবেনা। পুলিশের এহেন কর্মকান্ডের ঘটনা তদন্ত করে জড়িতদের দৃষ্টান্তমুলক শাস্তি দাবি করে প্রধানমন্ত্রী স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ও আইজিপির হস্তক্ষেপ কামনা করেন নাজমা বেগম।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত