প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভালবাসা দিবসে নিতুর গায়ে হলুদ

নিজস্ব প্রতিবেদক : পারিবারিক ভাবেই নিতুর বিয়ে ঠিক হয়ে গেছে, কোথাও কারো কোন আপত্তি নেই। ছেলের পরিবার নিতুকে ভীষণভাবে পছন্দ করেছে। বিয়ের পাত্র আবিদকেও নিতুর পরিবার বেশ পছন্দ করেছে। বিয়ের সব আয়োজন চলছে কারন বিয়ের দিনক্ষণ সব ঠিক হয়ে গেছে।

সব যখন ঠিকঠাক মত আগাচ্ছে এর মধ্যেই নিতুর চাচা খন্দকার আশরাফ জানায় এ বিয়ে হবে না।
নিতু তার মায়ের সাথে চাচার বাসায় থাকে। বাবার সাথে মায়ের আলাদা হয়ে যাওয়ার পর বাবা অন্য নারীকে বিয়ে করে তার মত করে থাকে। নিতুর চাচা, চাচী, মা ও দুই চাচাত ভাই-বোন নিয়েই নিতুর জগত।

নিতুর চাচা বেশ রাগী মানুষ, স্মার্ট এবং সহজভাবে স্পষ্ট কথা বলতেই বেশি পছন্দ করেন। আর পরিবারে খন্দকার সাহেবের কথাই আইন। সে যদি বলে এখন দিন তাহলে এখন দিন, আর রাত বললে রাত। খন্দকার সাহেবের উপর কেউ কথা বলতে সাহস পায়না। আবিদকে খন্দকার সাহেব নিজেই পছন্দ করেছিলেন নিতুর জন্য। আর আবিদ আসলেই যোগ্য পাত্র বলে কেউ কোনরুপ আপত্তি বা বিরক্তি প্রকাশ করেনি। এমনকি নিতুরও আবিদকে খুব পছন্দ হয়েছে।

আবিদ পরিবারের বড় ছেলে, ছোট একটা ভাই আছে। বাবা সরকারী কর্মকার্তা, মা একজন স্কুলের শিক্ষক। বেশ আদর্শ মাখা পরিবারে আবিদের জন্ম। আবিদ নিজেই একটি ফার্ম দেখাশোনা করেন। লেখাপড়া থেকে শুরু করে সব দিক দিয়ে আবিদ পরিপূর্ণ একটা ছেলে। তারা দুজনইে বাইরে আগে কিছু সময় চায় নিজেদের মধ্যে বোঝাপড়া করে নেওয়ার জন্য-এমন গল্পে নির্মিত হয়েছে ভালবাসা দিবসের নাটক ‘আজ নিতুর গায়ে হলুদ’।

ইমরাউল রাফাতের রচনা, চিত্রনাট্য ও পরিচালনায় নাটকে নুসরাত ইমরোজ তিশা, ইরফান সাজ্জাদ, ফখরুল বাশার মাসুম, মিলি বাশার, শিল্পী সরকার অপু প্রমুখ অভিনয় করেছেন।

১৪ ফেব্রুয়ারি রাত আটটায় এটি চ্যানেল আইয়ের পর্দায় প্রচারিত হবে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ