প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

২০ ফেব্রুয়ারি থেকেই ফোর-জি সেবা পাবে গ্রাহক: বিটিআরসি’র সচিব

জান্নাতুল ফেরদৌসী: ২০ ফেব্রুয়ারি থেকেই ফোর-জি সেবা পাবে গ্রাহক বলে জানিয়েছেন বিটিআরসি’র সচিব মো. সরওয়ার আদম।

মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকাল ১১টায় ঢাকা ক্লাবে তিনি এ কথা বলেন।

বিটিআরসি’র সচিব বলেন, আশা করছি দেশের জনগণ ২০ ফেব্রুয়ারি থেকেই ফোর-জি সেবা পেতে শুরু করবে। এটা ভালো ভাবে পেতে কিছুটা সময় লাগবে।

দেশে চতুর্থ প্রজন্মের টেলিযোগাযোগ সেবা ফোর-জি চালুর তরঙ্গ নিলাম মঙ্গলবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) অনুষ্ঠিত হবে। টেলিযোগাযোগ সংস্থা বিটিআরসি ঢাকা ক্লাবে এই নিলাম আয়োজন করছে। নিলামে অংশ নিতে আবেদন করেছে গ্রামীণফোন ও বাংলালিংক। রবি ও সিটিসেল নিলামে অংশ নেয়ার আগ্রহ দেখালেও শেষ পর্যন্ত অর্থ জমা দেয়নি। এদিকে সিটিসেলের কার্যক্রম বন্ধ থাকায় রয়েছে তবে সরকারি মালিকানাধীন টেলিটক আগ্রহ দেখায়নি।

বিটিআরসি’র সূত্র জানিয়েছে, ৯’শ, ১৮’শ এবং ২১’শ ব্র্যান্ডের তরঙ্গ নিলামে বিক্রি করা হবে। ৯’শ, ১৮’শ ব্র্যান্ডের প্রতি মেগাহার্টজের ভিত্তিমূল্য ধরা হয়েছে ৩ কোটি মার্কিন ডলার আর ২১’শ ব্র্যান্ডের জন্য ২ কোটি ৭০ লাখ ডলার। প্রতিটি ব্র্যান্ডের অংশ নেয়ার বিট আরনেস্ট মানি ১’শ ৫০ কোটি টাকা করে। ফোর-জি সেবা চালুর লাইন্সেসের জন্য গত জানুয়ারিতে ৫টি মোবাইল ফোন অপারেটর বিটিআরসি’র কাছে আবেদন করে।

তরঙ্গ নিলাম থেকে সরকার অন্তত ১১ হাজার কোটি টাকা আয় করতে চায়। বিটিআরসি সূত্রে জানা গেছে, রবি অ্যাক্সিয়াটা ফোর-জি সেবা দিতে এরই মধ্যে প্রযুক্তি নিরপেক্ষতার জন্য বিটিআরসিতে আবেদন করেছে। প্রযুক্তি নিরপেক্ষতা পেলে ৩টি ব্যান্ডের তরঙ্গ নিয়েই টু-জি, থ্রি-জি ও ফোর-জি সেবা দিতে পারবে মোবাইল ফোন।

বিটিআরসি চেয়ারম্যান ড. শাহজাহান মাহমুদ বলেন, ফোর-জি ও থ্রি-জি মধ্যে গুণগত পার্থক্যটা ব্যাপক। যে গ্রাহক ফোর-জি সেবা নেয়া শুরু করবে, সে আর থ্রি-জি তে ফিরে যেতে চাইবে না। ফোর-জি আসার পরে থ্রি-জি চেয়ে দ্রুত প্রসারিত হবে। সূত্র: যমুনা টিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ