প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাবরি মসজিদ নিয়ে মন্তব্য করে তোপের মুখে মাওলানা, বোর্ড থেকে বহিষ্কার

ওমর শাহ: ভারতে বাবরী মসজিদ নিয়ে বিতর্কিত মন্তব্যের দায়ে ‘মুসলিম পার্সোনাল ল বোর্ড’ থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে বোর্ডের নির্বাহী কমিটির সদস্য মাওলানা সালমান হুসেইন নাদভিকে। হায়দারাবাদে ‘মুসলিম পার্সোনাল ল’বোর্ড’ এর তিন দিনের বৈঠক শেষে আজ রোববার এ সংক্রান্ত ঘোষণা দেয়া হয়েছে।

এর আগে ল’ বোর্ডের নির্বাহী সদস্য কামাল ফারুকী এবং ডা. কাশিম রসুল ইলিয়াস মাওলানা সালমান হুসেইন নাদভির মন্তব্যের তীব্র বিরোধিতা করেন। তারা বলেন, বেঙ্গালুরুতে শ্রী শ্রী রবিশঙ্করের সঙ্গে বৈঠক শেষে সালমান নাদভি অযোধ্যার বিতর্কিত স্থান থেকে বাবরী মসজিদ অন্যত্র নির্মাণ করা সংক্রান্ত যে বিবৃতি দিয়েছেন তাতে শৃঙ্খলাভঙ্গ হয়েছে।

ভারতে ‘আধ্যাত্মিক গুরু’ নামে পরিচিত শ্রী শ্রী রবিশঙ্করের সঙ্গে স¤প্রতি বৈঠক করে ল’ বোর্ডের সদস্য মাওলানা সালমান হুসেইন নাদভি বলেন, ‘অযোধ্যার বিতর্কিত জমিতে রাম মন্দির হলে তাদের আপত্তি নেই। এর পরিবর্তে মসজিদ তৈরির জন্য মুসলিমদের এক খÐ জমি দেয়া হোক।’

গণমাধ্যমে তার এ ধরণের মন্তব্য প্রকাশ হওয়ার পর মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের বৈঠকে তীব্র ক্ষোভ ও অসন্তোষের সৃষ্টি হয়। মাওলানা সালমান হুসেইন নাদভির বিতর্কিত মন্তব্যকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে চার সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। তাদের প্রতিবেদনে সুপারিশের ভিত্তিতে ল’ বোর্ডে সর্বসম্মতিতে অবশেষে মাওলানা সালমান হুসেইন নাদভির সদস্যপদ বাতিল করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে পশ্চিমবঙ্গ থেকে হায়দাবাদে মুসলিম পার্সোনাল ল’ বোর্ডের সভায় যোগ দেয়া বিশিষ্ট সিনিয়র সদস্য ডা. রইসউদ্দিন বলেন, ‘মুসলিম পার্সোনাল ল’বোর্ডের পুরোনো অবস্থান থেকে সরে গিয়ে সালমান নাদভি যে ভিন্নমত প্রকাশ করেছেন তা শৃঙ্খলাভঙ্গের শামিল। এ ব্যাপারে যে তদন্ত কমিটি গড়া হয়েছিল তারা তার বিরুদ্ধে মত প্রকাশ করেছেন। এরপরেই বোর্ডের পক্ষ থেকে তার সদস্য পদ খারিজ করে দেয়া হয়েছে।’ সূত্র: রোজনামা সিয়াসাত উর্দু

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত