প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাঙালি সন্ত্রাসী বলে চালিয়ে দেওয়া যাবে না

নূর খান লিটন : মিয়ানমার সরকার শুরু থেকে বলে আসছে, তারা বাঙালি সন্ত্রাসীদের মারছে। বাঙালি সন্ত্রাসী তারা রাষ্ট্রীয়ভাবে ব্যবহার করেছে। মূল যে ঘটনাটি, সেটি হচ্ছে, রোহিঙ্গাদের দেখে দেখে বাছাই করে হত্যা করেছে মিয়ানমার সেনাবাহিনী। সম্প্রতি রয়টার্স রোহিঙ্গা গণহত্যার যে তথ্য দিয়েছে, এগুলো ইতিপূর্বে রোহিঙ্গা ক্যাম্পে যারা আছে, তারা আমাদের দেশের সাংবাদিক ও প্রশাসনকে বলেছে। আমরা বিভিন্ন সময় বলেছি, রাখাইন রাজ্যের রোহিঙ্গারা গণহত্যার শিকার।জাতিগত নিপীড়নের শিকার হয়েছে। তারা জান বাঁচাতে বাংলাদেশে এসেছে।

মিয়ানমার সেনাবাহিনী যে অভিযোগে অভিযুক্ত সেটি সঠিক। তারা গণহত্যা, নারী ধর্ষণ, শিশু হত্যার প্রত্যেকটি অভিযোগে অভিযুক্ত। এখন তাদের সময় এসেছে, এই অপরাধ স্বীকার করা বা বিচারের মুখোমুখি হওয়ার। এটিকে কোনোভাবে বাঙালি সন্ত্রাসী বলে চালিয়ে দেওয়া যাবে না। বিশ্বের সমস্ত দৃষ্টি এখন মিয়ানমারের দিকে। বিশ্ব জানে, মিয়ানমারের সেনাবাহিনী এই গণহত্যা করেছে। তারা যতই অস্বীকার করুক না কেন বা বাঙালি সন্ত্রাসী বলুক না কেন, এটি গ্রহণযোগ্য হবে না।

পরিচিতি : মানবাধিকার কর্মী
মতামত গ্রহণ : গাজী খায়রুল আলম
সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত