প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

নতুন ব্যান্ডগুলোর একটি প্ল্যাটফর্ম প্রয়োজন: আইয়ুব বাচ্চু

বিনোদন ডেস্ক: আইয়ুব বাচ্চু। জনপ্রিয় বাংলাদেশী সঙ্গীত শিল্পী। তিনি একাধারে গায়ক, লিডগিটারিস্ট, গীতিকার, সুরকার, প্লেব্যাক শিল্পী। এবার তার উপস্থাপনায় আরটিভিতে শুরু হতে যাচ্ছে ব্যান্ড মিউজিক্যাল শো ‘লাভেলো আর জেনারেশন’। এ অনুষ্ঠান পরিকল্পনা, বর্তমান ব্যস্ততা ও অন্যান্য বিষয়ে কথা হলো তার সঙ্গে-

উপস্থাপনা আগেও করেছেন। সে আয়োজন থেকে ‘লাভেলো আর জেনারেশন’ কতটা ভিন্ন হবে বলে মনে করছেন?

‘আর জেনারেশন’ অনুষ্ঠানের পরিকল্পনা কিছুটা হলেও ভিন্ন ধরনের। এর আগে ‘আর মিউজিক’ উপস্থাপনা করেছি। সেটি ছিল শিল্পীদের একক পরিবেশনার আয়োজন। আমন্ত্রিত শিল্পীরা গাইতেন, আমি তাদের গানের সঙ্গে গিটার বাজাতাম। গানের পাশাপাশি চলত আড্ডা। শিল্পীরা নানা অভিজ্ঞতার কথাও জানাতেন। আগের আর এখনকার আয়োজনে শুধু একটা মিল আছে তা হলো- দুটোই সঙ্গীতনির্ভর অনুষ্ঠান। কিন্তু ‘আর জেনারেশন’-এ শিল্পী নয় থাকছে বিভিন্ন ব্যান্ডের পরিবেশনা। একদিক থেকে এটা শুধু গানের আয়োজন নয়, নতুন ব্যান্ডগুলোর নিজেদের পরিচয় করিয়ে দেওয়ার প্ল্যাটফর্ম।

নতুন ব্যান্ডগুলোকে পরিচয় করিয়ে দিতেই ‘আর জেনারেশন’ অনুষ্ঠানটি নির্মাণ করা হচ্ছে?

হ্যাঁ, নতুন ব্যান্ডগুলোর পরিচয় করিয়ে দিতেই আমাদের এই আয়োজন। বিভিন্ন আয়োজনে জনপ্রিয় এবং পরিচিত ব্যান্ডগুলোই সুযোগ পাচ্ছে। তার মানে এই নয় যে নতুনরা ভালো কিছু করতে পারছে না। এর আগে ‘ব্যান্ড ফেস্ট’-এ নতুন কিছু ব্যান্ডের পরিবেশনা দেখেছি। তারা যে ভালো করছে, তার প্রমাণ পাওয়া গেছে সেই উৎসবে। নতুন ব্যান্ডগুলোর একটি প্ল্যাটফর্ম প্রয়োজন। যেখানে দাঁড়িয়ে তারা নিজেদের ভিন্নধর্মী সৃষ্টি তুলে ধরতে পারবে। তেমন একটি প্ল্যাটফর্ম পাচ্ছে না বলেই নতুন ব্যান্ডগুলো উঠে আসতে পারছে না। অবশেষে আরটিভি কর্তৃপক্ষ এমন একটি প্ল্যাটফর্ম তৈরি করেছে, যেখানে নতুন ব্যান্ডগুলো তাদের ব্যতিক্রমী আয়োজন তুলে ধরার সুযোগ পাবে। সে সুবাদে শ্রোতারাও পাবেন নতুন স্বাদের গান।

যেসব ব্যান্ড অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে, তাদের নির্বাচনের প্রক্রিয়া কেমন ছিল?

আর জেনারেশনে অংশ নেওয়া বেশ কিছু ব্যান্ড তাদের গান জমা দিয়েছে। সেসব গানের কথা-সুর-সঙ্গীত আয়োজন, গায়কী, পরিবেশনার ধরন- সবকিছু যাচাই করার মধ্যদিয়ে ২৬টি নির্বাচন করেছি আমরা। এ আয়োজনের পর্বসংখ্যা বাড়ানো হলে দেশের আরও কিছু সম্ভাবনাময় ব্যান্ডের পরিবেশনা তুলে ধরা হবে।

বলেছিলেন গিটার উৎসবের পর একক অ্যালবাম প্রকাশ করবেন। কিন্তু অ্যালবাম প্রকাশনা পিছিয়ে দিলেন, কেন?

বেঁধে দেওয়া সময়ের মধ্যে ‘মুহূর্তের মুহূর্তগুলো’ অ্যালবামের কাজ শেষ করতে পারিনি। এ কারণে ভক্তদের কথা দিয়েও কথা রাখতে পারিনি। অবশ্য এর মধ্যে অ্যালবামের কাজ শেষ করেছি। আশা করছি শিগগিরই প্রকাশ করতে পারব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত