প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রাজধানীতে সতর্কাবস্থায় পুলিশ

মাসুদ আলম : রাজধানীর হাইকোর্টের সামনে পুলিশের ওপর হামলার ঘটনার পর নড়েচড়ে বসেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। গতকাল সকাল থেকে হাইকোর্ট সামনে ও আশপাশে প্রস্তুত ছিলো সাঁজোয়া যান, জলকামান আর প্রিজনভ্যান। বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুরো এলাকায় পোশাকে ও সাদা পোশাকে বিপুল সংখ্যক আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য মোতায়েন ছিল। একই অবস্থা ছিলো বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আসা যাওয়ার রাস্তায়ও। সন্দেহভাজন যানবাহন ও ব্যক্তিদের তল্লাশি করতে দেখা গেছে।

সরজমিনে দেখা গেছে, বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার আদালতে হাজিরাকে কেন্দ্র করে হাইকোর্ট, বকশি বাজার,পল্টন,মগবাজার,তেজগাঁও ও গুলশান এবং আশপাশে এলাকায় সতর্ক অবস্থানে ছিলো পুলিশ। মোড়ে মোড়ে দাঁড়িয়ে ছিলো পোশাকে ও সাদা পোশে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা। এছাড়া র‌্যাবকে টহল দিতে দেখা গেছে। হাইকোর্টে প্রবেশে ছিলো কড়াকড়ি। প্রবেশকালে প্রত্যককে পরিচয়ত্র দেখিয়ে ও সঙ্গে থাকা ব্যাগও তল্লাশি করতে দেখা গেছে। প্রয়োজন ছাড়া হাইকোর্টের ভেতরে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এছাড়া ছড়িয়ে-ছিটিয়ে ছিলো পুলিশের ছোট ছোট পিকআপভ্যান। পুলিশ মঙ্গলবার রাত থেকে বুধবার পর্যন্ত প্রায় শতাধিক ব্যক্তিকে আটক করেছে। পথচারিদের মধ্যে এক ধরনের উদ্বেগ দেখা গেছে।

পুলিশের রমনা বিভাগের ডিসি মারুফ হোসেন সরদার বলেন, হাইকোর্ট এলাকায় যেন কোনো বিশৃঙ্খল পরিস্থিতির সৃষ্টি করতে না পারে সেজন্য অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। সন্দেহভাজন ব্যক্তিদের তল্লাশি করা হয়। মঙ্গলবার বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আদালতে হাজিরা দিয়ে ফেরার সময় বিএনপির একটি মিছিল থেকে পুলিশের প্রিজন ভ্যানে হামলা ও ভাঙচুর চালিয়ে দুইকর্মীকে ছিনিয়ে নেওয়া হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত