প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রেমিট্যান্স বাড়াতে নতুন শ্রমবাজার খুঁজছে সরকার: পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী

তরিকুল ইসলাম: রেমিট্যান্স বাড়াতে নতুন শ্রমবাজার খুঁজছে সরকার। অভিবাসীদের পাঠানো অর্থ দেশের উন্নয়নে বড় ভূমিকা রাখছে। এ মুহুর্তে মালয়েশিয়ায় থাকা ৮ লাখ অবৈধ (ইরেগুলার) বাংলাদেশী শ্রমিককে বৈধ (রেগুলার) করাই বর্তমান সরকারের কাছে বড় চ্যালেঞ্জ বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম একথা বলেন।

বুধবার রাজধানীর সিরডাপ মিলনায়তনে গবেষণা প্রতিষ্ঠান রিফিউজি অ্যান্ড মাইগ্রেটরি মুভমেন্ট রিসার্চ ইউনিট (রামরু) আয়েজিত এক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। কর্মশালায় ঢাকাস্থ ফরাসি রাষ্ট্রদূত মেরি অ্যানিক বোডিন, রামরুর প্রতিষ্ঠাকালীন সভাপতি ড. তাসনিম সিদ্দীকি, গবেষক ড. অনন্ত নীলিম, ড. চৌধুরী রাশেদ শাহাবাবও বক্তব্য রাখেন।

শাহরিয়ার আলম বলেন, মালয়েশিয়ায় থাকা অবৈধ শ্রমিকদেরকে সরকার টু সরকার (জিটুজি) আলোচনার মাধ্যমে বৈধ করার সিদ্ধান্ত হয়েছে। প্রতিদিন দেশটির বাংলাদেশ হাইকমিশনে ১০ হাজারের বেশি আবেদন জমা পড়ছে। সম্প্রতি অভিবাসীদের রেমিট্যান্স পাঠানোয় যে নেতিবাচক প্রবণতা দেখা দিয়েছিলো তা কেটে গেছে। সরকার নিরাপদ ও ঝুঁকিমুক্ত অভিবাসনের পক্ষে কাজ করছে।

তিনি বলেন, অভিবাসীদের দক্ষ করে তুলতে দেশব্যাপী ‘টেকনিক্যাল স্কুল’ তৈরিরও সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ইতোমধ্যে এর ১০টির নির্মাণ কাজ শুরু হয়েছে। এই স্কুলের ধারণা সম্পূর্ণ নতুন। এগুলো প্রচলিত পলিটেকনিক বা ভকেশনাল স্কুল নয়, বরং সাধারণ স্কুল-কলেজের মতোই পরিচালিত হবে। ইতোমধ্যে হংকং বাংলাদেশ থেকে দক্ষ শ্রমিক নিয়োগে আগ্রহ দেখিয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত