প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অনূর্ধ্ব-১৯ যুব বিশ্বকাপে বাংলাদেশ ৬ষ্ঠ

স্পোর্টস ডেস্ক: বাংলাদেশের যুবাদের স্থান নির্ধারণী ম্যাচটা দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে হওয়ায় অনেকেই হয়তো ফিরে গিয়েছিলেন দুই বছর আগে। ২০১৬-তে ঘরের মাঠে অনুষ্ঠিত অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে প্রোটিয়াদের হারিয়েছিল মেহেদী হাসান মিরাজের বাংলাদেশ। কিন্তু নিউজিল্যান্ডে সাইফ হাসানের বাংলাদেশ আজ ব্যর্থ হয়েছে। কুইন্সটাউনে স্থান নির্ধারণী ম্যাচে ৮ উইকেটে হেরে শেষ অবধি পঞ্চম স্থানটাও পেল না বাংলাদেশের অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

টসে জিতে ব্যাটিং নিয়েও সংগ্রহটা বড় করতে পারেনি বাংলাদেশ। ৩৩ রানে ৫ উইকেট হারিয়ে শুরুতেই পথ হারানো দল যে শেষ পর্যন্ত ১৭৮ রান স্কোরবোর্ডে তুলতে পেরেছে, আফিফ হোসেন আর শাকিল হোসেনের দুটি পঞ্চাশোর্ধ্ব ইনিংসে (যথাক্রমে ৬৩ ও ৬১)।

বাকি ব্যাটসম্যানদের মধ্যে টিপু সুলতানের ১৮ আর কাজী অনিকের ১৩ রান ছাড়া দুই অঙ্কের ঘরেই নেই কোনো স্কোর। গোটা টুর্নামেন্ট জুড়ে বাংলাদেশের প্রাণভোমরা হয়ে থাকা আফিফ আজও ব্যাট হাতে অনন্য। ৬৩ রান করেছেন ৫৯ বলে। মেরেছেন ৭টি চার ও ২টি ছক্কা। শাকিল ৬১ করেছেন ৮৯ বলে, ৬টি চারে।

দক্ষিণ আফ্রিকা যুব দলের ফাস্ট মিডিয়াম বোলার ফ্রেসার জোনসই দুর্বল করে দেন বাংলাদেশের পথচলা। ৩২ রানে ৫ উইকেট নিয়েছেন তিনি। আরেক পেসার অ্যাখোনা এমনিয়াকা ৩ উইকেট নিয়েছেন ২৭ রানে। একটি উইকেট নিয়েছেন ডি ক্লার্ক।

১৭৯ রানের মামুলি লক্ষ্যমাত্রায় ব্যাটিংয়ে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা ২৯ ও ৬৩ রানের মাথায় দুটি উইকেট হারায়। জিভেশান পিল্লাই ১২ আর ম্যাথু ব্রিটজকে ৩৬ রানে ফেরেন। এরপর প্রোটিয়াদের আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি। অধিনায়ক রায়নার্ড ফন টনডার ৮২ রানের দারুণ এক ইনিংস খেলে দলের জয়ের পথ নিশ্চিত করে দেন। টনডার ৯৯ বলে ৭টি চার ও ২টি ছক্কায় তার এই ইনিংসটি খেলেন। হারমান রফেলস ৫১ বলে করেন ৪৪। বাংলাদেশের পক্ষে একটি করে উইকেট নিয়েছেন হাসান মাহমুদ ও টিপু সুলতান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত