প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ডিভোর্স পার্টির প্রবণতা বাড়ছে সৌদি আরবে

পরাগ মাঝি : বিয়ে বিচ্ছেদের পর পার্টি করে উদযাপন করার প্রবণতা বাড়ছে সৌদি আরবে। শুধু তাই নয়, বিচ্ছেদের শিকার নারীদেরকেও পূর্বের তুলনায় স্বাভাবিকভাবে নিতে শুরু করেছে সৌদি আরবের বর্তমান সমাজ ব্যবস্থা। বিগত বছরে দেশটিতে বিচ্ছেদের সংখ্যাও অন্যান্য বছরের তুলনায় বেশি দেখা গেছে।

অতীতে দেখা যেত, বিচ্ছেদের শিকার সৌদি নারীরা সমাজে কোনঠাসা হয়ে যেতো। তালাকপ্রাপ্ত নারীদের সন্তান ধারণ ও বিবাহের জন্য অনুপোযুক্ত ভাবা হতো। কিন্তু বর্তমানের প্রেক্ষাপটটি সম্পূর্ন ভিন্ন। সমাজে তাদের কেমন চোখে দেখা হচ্ছে, তা নিয়ে তারা চিন্তিত নয়। এমনকি ইচ্ছা করলে সব তালাকপ্রাপ্ত সৌদি নারীই নির্দিধায় পুনরায় আরেকটি বিয়ে করতে পারে।

সাম্প্রতিক বছরগুলোতে বিচ্ছেদকে উদযাপন করার মতো প্রবণতাও তৈরী হয়েছে সৌদি আরবে। তবে, কেউ কেউ এটিকে গর্হিত কাজ মনে করেন। তাদের মতে, বিচ্ছেদ কোন নারী-পুরুষ কিংবা তাদের সন্তানদের জন্য আনন্দের উপলক্ষ্য হতে পারেনা।

কিং আব্দুল আজিজ ইউনিভার্সিটির ছাত্র আমানি আল-ঘরাইবি আরব নিউজকে একটি বিচ্ছেদ পার্টির বর্ণনা দিতে গিয়ে বলেন, ‘আসলে ওই পার্টিটি ছিলো আমার এক আন্টির। বিচ্ছেদের আইনি প্রক্রিয়া সম্পন্ন হওয়ার পর কাগজপত্র হাতে পেলে তিনি দারুণ মুক্তি অনুভব করছিলেন। আর এটিকে উদযাপন করার জন্যই তিনি একটি রিসোর্টের ক্যাবিন ভাড়া নেন এবং তার আত্মীয় স্বজনকে কয়েকদিনের জন্য নিমন্ত্রণ জানান। তিনি একটি ছাগল জবাই করেছিলেন, আর স্বজনরা তার জন্য একটি কেক নিয়ে গিয়েছিলো।’

আরব নিউজকে বিচ্ছেদ পার্টির আরেকটি বর্ণনা দিলেন দোয়া আব্দুল্লাহ। ১৩ বছর বয়সে নিজের বাবা-মা’র বিচ্ছেদের বর্ণনা দিয়ে তিনি বলেন, ‘আমার মা একটি ডিজে পার্টির আয়োজন করেছিলেন এবং তিনি তার বন্ধু ও আত্মীয়দের নিমন্ত্রণ করেছিলেন। তিনি যখন পার্টি কেক কাটছিলেন, আমি তখন তাকে সাহায্য করে দারুণ আনন্দ পাচ্ছিলাম। তিনি বেশ কয়েক বছর ধরেই বিচ্ছেদের জন্য চেষ্টা করে যাচ্ছিলেন। পরবর্তীতে এটি যখন সম্পন্ন হলো তখন উদযাপন না করার কোন কারণ আছে কি?’ আরব নিউজ অবলম্বণে

সর্বাধিক পঠিত