প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইন্দোনেশিয়ায় চুল কেটে তৃতীয় লিঙ্গদের ‘পুরুষ’ বানানোর চেষ্টা

মরিয়ম চম্পা: ইন্দোনেশিয়ায় জোর করে চুল কেটে তৃতীয় লিঙ্গের মানুষদের ‘পুরুষ’ বানানোর চেষ্টা করছে দেশটির পুলিশ। তৃতীয় লিঙ্গের লোকদের সঙ্গে এ ধরনের আচরণের নিন্দা জানিয়েছে বিশ্ব মানবাধিকার সংস্থাগুলো।

দ্য ইন্দোনেশীয় ন্যাশনাল কমিশন অব হিউম্যান রাইটস এই অভিযানের নিন্দা জানিয়ে বলেন, পুলিশ আইনের বাইরে গিয়ে কাজ করছে। পুলিশের এ ধরনের আচরণ অমানবিক। ইন্দোনেশিয়া পুলিশ তৃতীয় লিঙ্গের ১২ জনকে আটক করেছে। তাঁদের লম্বা চুল কেটে দেওয়া হয়েছে। তৃতীয় লিঙ্গের ওই কয়েকজনকে জোর করে পুুরুষের পোশাক পরানো হয়। তাদেরকে এখন থানায় আটকে রাখা হয়েছে।

এদিকে পুলিশ বলছে, পুরুষের মতো আচরণ করার জন্য তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। আচেহ প্রদেশে বেশ কয়েকটি বিউটি সেলুনে গত সপ্তাহে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। সেখানে কর্মরত তৃতীয় লিঙ্গের লোকদের স্থানীয় পুলিশ স্টেশনে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশের আচরণে বিরক্ত কিনা এমন প্রশ্নের জবাবে তৃতীয় লিঙ্গের একজন জানায়, সে বিরক্ত না। কিন্তু সেই কণ্ঠস্বরে কোনো স্বতঃস্ফূর্ততা ছিল না।

স্থানীয় পুলিশপ্রধান আহমদ উনজুং সুরিয়ানাতা বিবিসিকে বলেন, ‘কাউন্সেলিং ও প্রশিক্ষণের জন্য আমরা তাঁদের তিন দিন রাখব। তারা ভালো করছেন এবং অনেকটা পুরুষের মতো আচরণ করছেন বলেও জানান তিনি। বিবিসি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত