প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

টাইগারদের নেতৃত্বে রিয়াদ -
বুধবার প্রথম টেস্টে বাংলাদেশ – শ্রীলঙ্কা মুখোমুখি

এল আর বাদল : টানা সাত বছর টেস্ট ক্রিকেটে বাংলাদেশের অধিনায়কত্ব দেওয়া মুশফিকুর রহিমকে সরিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড সাকিব আল হাসানকে দায়িত্ব দিয়েছিলো। ভাগ্য মন্দ এই শীর্ষ অলরাউন্ডারের। শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে ত্রিদেশীয় সিরিজে আঙুলে আঘাত পেয়ে প্রচ- ভুগছেন। চট্টলা টেস্ট থেকে বাইরে। এবার মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের পালা। তার কাঁধেই বর্তালো প্রথম টেস্টের অধিনায়কত্ব।

টেস্ট ক্যারিয়ারে রিয়াদের আধিনায়ক হিসাবে অভিষেক ঘটবে বুধবার। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে মাহমুদ উল্লাহ রিয়াদের নেতৃত্বে বাংলাদেশ মোকাবিলায় নামবে দিনেশ চান্ডিমালের শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে। সকাল সাড়ে ৯টায় ম্যাচ শুরু হবে।

টেস্ট ইতিহাসে আটটি দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। এরমধ্যে প্রথম সাতটি সিরিজই জিতে লঙ্কানরা। গত মার্চে শ্রীলংকার মাটিতে দু’ম্যাচের টেস্ট সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করে বাংলাদেশ। এবার দুই ম্যাচের সিরিজের আগে গত সিরিজের ফলাফল উৎসাহ যোগাচ্ছে টাইগার সেনাদের। তবে দলগত পারফরমেন্সরকই গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন বাংলাদেশ অধিনায়ক মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। অপরদিকে, সিরিজে ভালো শুরুর প্রত্যাশা শ্রীলকার অধিনায়ক দিনেশ চান্ডিমালের।
২০০১ সালের ৬ সেপ্টেম্বর প্রথম টেস্ট ক্রিকেটে মুখোমুখি হয় বাংলাদেশ ও শ্রীলংকা। ওই ম্যাচে ইনিংস ও ১৩৭ রানের ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ। পরের বছরই দ্বিপক্ষীয় সিরিজে মুখোমুখি হবার সুযোগ পায় দু’দল। দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ জয় দিয়ে শুরু করে শ্রীলংকা। সেই জয়ের ধারা পরের ছয় সিরিজেও অব্যাহত ছিলো লংকানদের।

কিন্তু গত বছরের মার্চে শ্রীলংকার মাটিতে টেস্ট সিরিজ ১-১ ব্যবধানে ড্র করে বাংলাদেশ। টেস্ট ক্রিকেটে এই প্রথম শ্রীলংকার বিপক্ষে টেস্ট সিরিজ ১-১ সমতায় শেষ করে হারের লজ্জা এড়ায় টাইগাররা। ওই সিরিজের প্রথম ম্যাচ ২৫৯ রানের ব্যবধানে হারলেও, দ্বিতীয় ও শেষ টেস্ট ৪ উইকেটে জিতে নেয় বাংলাদেশ। জয় পাওয়া টেস্টটি ছিলো বাংলাদেশের শততম টেস্ট। দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ে সিরিজও ড্র করে বাংলাদেশ। তাই ওই সিরিজটিই বাংলাদেশের আত্মবিশ্বাস বাড়ানোর উপদান। এটিকে পুঁজি করেই শ্রীলংকার বিপক্ষে আবারো টেস্ট সিরিজ শুরু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ। এমনটিই মনে করেন টাইগার দলনেতা।

রিয়াদ বলেন, আমি বিশ্বাস করি দলের সবাই যদি ভালো পারফরম্যান্স করে তাহলে আমার জন্য অধিনায়কত্ব সহজ হবে। গতবারের পারফরমেন্স ধরে খেলতে পারলে প্রথম টেস্টে জয় কিংবা ড্র করা খুব কষ্টের হবে না। আমার বিশ্বাস, আমরা কাঙ্খিত লক্ষ্যে পৌঁছাতে পারবো।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত