প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্রাউন প্রিন্সের বশ্যতা স্বীকার করে না কিছু সৌদি তরুণ

মুফতি আবদুল্লাহ তামিম: সৌদি আরবের ক্রাউন প্রিন্স মুহাম্মাদ বিন সালমানের বশ্যতা স্বীকার করে না কিছু সৌদি তরুণ। সম্প্রতি আধুনিকায়নের নামে ইসলামের জন্মস্থান থেকে ইসলাম দূরে সরিয়ে দিচ্ছে মুহাম্মাদ বিন সালমান বলে মন্তব্য করেন তারা।

রিয়াদের একটি ক্যাফেতে খোলামেলা নৃত্য সঙ্গীত ও রঙিন পোশাক পরে অল্পবয়সী নারীদের ড্যান্সের এক ভিডিও প্রকাশিত হওয়ায় সৌদির একদল যুবক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এর বিরোদ্ধে জনমত তৈরীর চেষ্টা করেন। তারা বলেন, এ ধরনের দৃশ্য ইসলামের দেশে, নবীর দেশে বিশ্বাস করা খুবই কঠিন। যেখানে বায়তুল্লাহ আর মসজিদে নববী রয়েছে সেখানে নগ্ন হয়ে ড্যান্স করা এটা সত্যিই দুঃখজনক। আমরা এটা মেনে নিতে পারছি না।

সৌদির আরও একদল যুবক টুইট বার্তায় ক্রাউন প্রিন্সের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, তরুণ সৌদিরা শুধু ‘স্বাভাবিক জীবন’ চায়। প্রিন্স মুহাম্মদ গত বছর বিদেশি বিনিয়োগকারীদের জানান, তিনি সৌদী আরবকে ‘মধ্যপন্থী ইসলামী’ রাষ্ট্রে পরিণত করবেন। এটার জন্য পুরুষ-মহিলার অবাদ মেলামেশার সুযোগ করে দেয়া ইসলামী বিধান অনুমোদন করে না।

তারা বলেন, যেখানে ৩০ বছরের নিচে এক-তৃতীয়াংশ সৌদি নাগরিক বেকার। সেখানে নতুন কর ও ভর্তুকি বৃদ্ধি করায় হতাশ হচ্ছে যুব সমাজ। ২৫ বছর বয়সী চাকুরীর সন্ধানকারী রাহাফ বলেন, বিনোদন কর্তৃপক্ষের কনসার্টে ব্যয় করা অর্থ বেকার ও দারিদ্র নাগরিকদের মাঝে ব্যয় করা উচিত। ডাব নিউজ, টাইমস অব ইন্ডিয়া

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত