প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বরগুনা-২ আসনে মনোনয়ন প্রত্যাশীদের দৌড়ঝাঁপ

ইমরান হোসাইন (পাথরঘাটা) বরগুনা: বরগুনার (পাথরঘাটা,বামনা ও বেতাগী) নিয়ে গঠিত বরগুনা-২ আসন। এ আসনটি ছিল একসময় বিএনপির ঘাঁটি হিসেবে পরিচিত। ২০০৮ সালের নির্বাচনে এটি দখলে নেয় আওয়ামী লীগ। এখন পুণরায় দখলে নেওয়ার চেষ্টা করছে বিএনপি। আগামী একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচন সামনে রেখে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন প্রত্যাশীদের সরব প্রচারণা থাকলেও নীরবে সক্রিয় হওয়ার চেষ্টা করছেন বিএনপির প্রার্থীরা।

এই আসনে মাঠে নেমেছেন বর্তমান সাংসদ সহ ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের একাধিক মনোনয়ন প্রত্যাশীরা। বর্তমান সাংসদ শওকত হাচানুর রহমান রিমন, গোলাম সবুর টুলু এমপির মৃত্যুতে উপ-নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন পেয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন।

এবারও তিনি মনোনয়ন পাবেন বলে মনে করছেন তার সমর্থক আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীরা।

অন্যদিকে বিএনপির প্রার্থী হিসেবে জেলা বিএনপির সাবেক সভাপতি বিএনপি নেতা তিনবার নির্বাচিত সংসদ সদস্য নুরুল ইসলাম মনি। তিনি এলাকার নেতাকর্মীদের সাথে যোগাযোগ রাখছেন এবং মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন। তিনবার নির্বাচিত এ এমপিকেই বিএনপি থেকে মনোনয়ন দেওয়া হবে বলে মনে করছেন তার সমর্থকরা।

এছাড়াও দলের ভাইস চেয়ারম্যান, বিশিষ্ট আইনজ্ঞ অ্যাডভোকেট খন্দকর মাহবুব হোসেন। জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ও বেতাগী উপজেলা চেয়ারম্যান মো: শাহজাহান মিয়ার নাম শোনা যাচ্ছে।

বিএনপি নেতাদের অভিযোগ, আওয়ামী লীগ সরকারের দমন-পীড়ন, গুম-খুন, মামলা-হামলা, জেল- জুলুম, মিছিল-সভা-সমাবেশে বাঁধা দেয়া হচ্ছে। তারা বলেন, আগামী একাদশ জাতীয় নির্বাচন কিভাবে অনুষ্ঠিত হবে এটাই বড় বিষয়।

দলের কেন্দ্রীয় কমিটি নির্বাচনে অংশ নেয়ার ঘোষণা দিলে তারা কোমর বেঁধে মাঠে নামবেন। আসনে বর্তমান সাংসদ শওকত হাচানুর রহমান রিমন তিনি দুবার এই আসন থেকে আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়ে আসছেন। তিনি এ আসন থেকে আবারও মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন।

এ ছাড়া মনোনয়নের জন্য দৌড়ঝাঁপ করছেন যুবলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির অর্থবিষয়ক সম্পাদক সুভাষ চন্দ্র হাওলাদার, বরগুনা পৌরসভা থেকে দুবার নির্বাচিত মেয়র শাহদাত হোসনের বাড়ি পাথরঘাটা হওয়ায়-পাথরঘাটা-বামনা-বেতাগী এলাকায় পোস্টারিং করে আগামী সংসদ নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন পেতে নিয়মিত গণসংযোগ করে আসছেন।

একুশে আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় আহত নাসিমা ফেরদৌসি জানান, ১৯৯৬ সাল থেকে তিনি দলের মনোনয়ন চেয়ে আসছেন, আগামীতেও চাইবেন। এ ছাড়া ও রয়েছেন প্রায়ত এমপি গোলাম সবুর টুলুর মেয়ে, জেলা সহ-সভাপতি ফারজানা সবুর (রুমকি)। এরই মধ্যে তিনি নেতাকর্মীদের নিয়ে সভা সমাবেশ ও দুস্থদের অনুদান দিয়ে নির্বাচনী প্রচার-প্রচারনা চালাচ্ছেন। তিনি দলের মনোনয়ন পাওয়ার আশাবাদী ও প্রত্যাশী।

অপরদিকে ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ থেকে মনোনয়ন প্রত্যাশা করছেন, সাবেক সাংসদ গোলাম সরোয়ার হিরু। তিনি মাঝে মধ্য একাদশ জাতীয় নির্বাচন নিয়ে নেতা কর্মীদের সঙ্গে যোগাযোগ অব্যাহত রেখেছেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত