প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে সু চি’র বায়োপিকের নায়িকা

লিহান লিমা: মিয়ানমারের নির্যাতনের শিকার হয়ে বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়া রোহিঙ্গাদের দেখতে কক্সবাজারে ছুটে এসেছেন হলিউড অভিনেত্রী মিশেল ইয়ো (৫৫)। ২০১১ সালে মিয়ানমারের নেত্রী অং সান সু চি কে নিয়ে নির্মিত ছবি ‘দ্য লেডি’তে অভিনয় করে ওই সময় মিয়ানমার সরকারের কালো তালিকায় পড়েছিলেন ইয়ো।

জাতিসংঘ উন্নয়ন প্রকল্পের শুভেচ্ছাদূত ইয়ো শনিবার মালয়েশিয়ার আমর্ড ফোর্সের প্রধান জেনারেল রাজা মোহাম্মদ আফেন্দিসহ ৫৭জন প্রতিনিধিদের নিয়ে রোহিঙ্গা শিবির পরিদর্শন করেন ও ত্রাণ বিতরণ করেন।

বালুখালী রোহিঙ্গা শিবির ও মালয়েশিয়ার ফিল্ড হাসপাতাল পরিদর্শন শেষে তিনি বলেন, প্রতিটি মানুষই মানবাধিকার পাওয়ার অধিকার রাখে এবং আমাদের তা নিশ্চিত করা উচিত। রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি অত্যন্ত জঘন্য ও অবর্ণনীয়। এটি খুবই দুঃসহ ও হৃদয়বিদারক। যা মেনে নেয়া যায় না। রোহিঙ্গাদের পরিস্থিতি স্বচক্ষে দেখতে বিশ্বের সবারই এখানে আসা উচিত। তাহলেই এটি উপলদ্ধি করা সম্ভব। আমরা মালয়েশিয়া ফেরত গিয়ে প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজ্জাককে রোহিঙ্গাদের করুণ পরিস্থিতি সম্পর্কে অবহিত করব।

তিনি আরো বলেন, প্রতিবেশি রাষ্ট্র হিসেবে মালয়েশিয়ার কাছে রোহিঙ্গা ইস্যুটি অনেক গুরুত্বপূর্ণ এবং আমাদের প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজ্জাক নির্যাতনের শিকার হওয়া রোহিঙ্গাদের সাহায্য করতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ।

চিরসবুজ অভিনেত্রী ইয়ো ১৯৯৭ সালে জেমস বন্ডের ছবি ‘টুমোরো নেভার ডাইস’ এ অভিনয় করে আন্তর্জাতিক খ্যাতি অর্জন করেন। চীনা আর্ট ফিল্ম ‘ক্রাউচিং টিগার, হিডেন ড্রাগন’ এ অনবদ্য অভিনয়ের জন্য ২০০০ সালে বাফটার সেরা অভিনেত্রীর পুরষ্কার ঝুলিতে তুলে নেন তিনি। ২০০৮ সালে চলচ্চিত্র সমালোচক বিষয়ক ওয়েবসাইট ‘রটেন টোমাটিউস’ তাকে সর্বকালের সেরা অ্যাকশন হিরোইন হিসেবে আখ্যায়িত করে।

১৯৯৭ সালে ‘পিপলস’ তাকে বিশ্বের সেরা ৫০ জন্য সুন্দর নারীর তালিকায় স্থান দেয়। ২০০৯ সালে প্রথম এশিয়ান অভিনেত্রী হিসেবে একই ম্যাগাজিনের ‘৩৫ সেরা পর্দা-সুন্দরী’র তালিকায় স্থান করে নেন তিনি। সম্প্রতি ডিসকভারির সায়েন্স ফিকশন সিরিজ ‘স্টার ট্রিক’ এ তাকে দেখা যাচ্ছে। দ্য স্টার অনলাইন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত