প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশের মানুষের হৃদয় ভালোবাসায় পরিপূর্ণ : প্রীতম মন্ডল

গাজী খায়রুল আলম : কলকাতার একজন জনপ্রিয় গীতিকার প্রীতম মন্ডল। বোঝে না সে বোঝে না, কিরণমালা পটলকুমারসহ জনপ্রিয় বেশিরভাগ সিরিয়ালের টাইটেল গানগুলো তার লেখা। সম্প্রতি প্রীতম গান নিয়ে কাজ করেছেন বাংলাদেশে। বাংলাদেশে কাজ করার অভিজ্ঞতা নিয়ে কথা বলেছেন, দৈনিক আমাদের অর্থনীতির সাথে।

প্রশ্ন : বাংলাদেশের গানের সাথে কিভাবে যুক্ত হলেন?

আমি বাংলা গানের একজন ভক্ত। এখানকার গানের সুরগুলো মিশে আছে কবি জীবনানন্দ দাসের পল্লী প্রকৃতির কবিতার সাথে। তাই সবসময় ভাবতাম কিভাবে বাংলাদেশের গানের সাথে যুক্ত হওয়া যায়। কলকাতায় একদিন আমার সাথে পরিচয় হয়, বাংলাদেশের গায়িকা রেহনুমা রাফসানা নিশির সাথে। তিনি আমাকে ইমরান মাহমুদলের সাথে কাজ করার অফার করে। আমি সেই সুযোগটি মিস করতে চাইনি। তার মাধ্যমে পরিচিয় হয় ইমরান মাহমুদুল ভাইয়ের সাথে। তারপরই বাংলাদেশের গানের সাথে নিজেকে যুক্ত করি।

প্রশ্ন : এখানে গান করে কেমন লেগেছে?

-গান নিয়ে বাংলাদেশে কাজ করার স্বপ্নটি পূরণ হয়েছে। এখানে সবাই সাহায্য পরায়ণ। বাংলাদেশের শিল্পীরা খুব বড় মনের মানুষ। শান ভাইয়ের সাথেও দুটি কাজ করেছি। খুব ভালো লেগেছে। আগামীতেও আরও ভালো কাজ করতে চাই। এখানকার মনোমুগ্ধকর পরিবেশ সত্যি নেশা যুক্ত। নির্মল হাওয়া, সবুজের সমারোহ সবকিছু মনোমুগ্ধকর। বিশেষ করে বাংলাদেশের মানুষদের হৃদয় ভালোবাসা ভরপুর।

প্রশ্ন : বাংলাদেশের শ্রোতাদের থেকে কেমন সাড়া পেয়েছেন?

-বাংলাদেশি মানুষগুলো গান প্রিয়। তাদের কাছে ভালো সাড়া পেয়েছি। নতুন কাজ করার জন্য আগ্রহ বাড়ছে। আরও ভালো গান দেওয়ার জন্য চেষ্টা থাকবে আমার।

প্রশ্ন : বাংলা গানের যে শিল্পীগুলোর গান পছন্দ করেন?

-বাংলা গানের ভক্ত যেহেতু, সবসময় বাংলা গান শোনা হয়। এর মধ্যে রুনা লায়লা ম্যামের গান বেশি শুনি। তাছাড়া, জ্যামস, আসিফ আকবর, ইমরান ও মিনারের গান ভালো লাগে। আমাদের দেশের লতা জি, আশা জি, সন্ধ্যা মুখার্জী, হেমন্ত মুখোপাধ্যায় ও মান্নাদের গান বেশি শোনা হয়। তাছাড়া নতুনদের মধ্যে শ্রেয়া ঘোষাল, অরিজিৎ সিং দার গান বেশি শুনি।

প্রশ্ন : সুযোগ পেলে সামনে কার সাথে কাজ করতে চান?

-সুযোগ পেলে অবশ্যই আমার গুরু আসিফ ভাইয়ের সাথে কাজ করতে চাই। সুরকার ইমন শাহ, সান ভাই ও ইমরান ভাইয়ের সাথে কাজ রকতে চাই।

প্রশ্ন : বাংলাদেশী শ্রোতাদের সাথে আপনার সম্পর্ক কেমন বলে মনে করেন?

-বাংলাদেশি মানুষ আমাকে কতটি চেনে তা জানি না। তবে আমি শোনেছি এই দেশের মানুষ খুবই ভারতীয় সিরিয়াল দেখে। তারা আমার গানের সাথে ঠিকই পরিচিত। তার আমার লেখা গান প্রতিদিনই শোনে। কারণ, যেসকল সিরিয়ালগুলো তারা দেশে বেশিরভাগ সিরিয়ালে টাইটেল গান আমার লেখা। তাই তাদের সাথে আমার একটি সম্পর্ক নিশ্চয় আছে।

প্রশ্ন : দুই বাংলার গানের মধ্যে কোনো পার্থক্য আছে কিনা?

-এপার বাংলা বা ওপার বাংলা বলতে কিছু আছে, অন্তত আমি মনে করি না। শুধু মাঝখানে একটি বেড়া জাল দিয়ে দেওয়া হয়েছে। গানই একমাত্র আমাদের একসাথে করতে পারে। আমি চাই বাংলা গান গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে পড়–ক। প্রতিটি গীতিকার ও সুরকারের ভাবনা আলাদা। তাই একটি পার্থক্য থাকবেই। এছাড়া আর কোনো পার্থক্য দুই বাংলায় আছে বলে আমি মনে করি না।

প্রশ্ন : বর্তমানে হাতে দুই বাংলার জন্য কী কাজ আছে?

-বেশ কিছু ছবির কাজের কথা চলছে। তাছাড়া ইমরান ও শান ভাইয়ের সাথে দুটি কাজ করেছি, সামনে এগুলো রিলিজ হবে।  আর আমার দেশেতো নিয়মিত সিরিয়াল ও ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ততা চলছেই। বাকিটা সময় বলে দিবে কেমন করতে পারলাম।

প্রশ্ন : বাংলাদেশী আপনার ভক্তদের জন্য কি বলার আছে?

-বাংলা দেশের শ্রোতাদের এটিই বলব, আপনারা গানকে ভালোবাসুন। বেশি বেশি বাংলা গান শুনুন। আপনারাই পারবেন বাংলা গানকে বিশ্ব দরবারের পৌঁছে দিতে। আপনার বাংলা গানকে ভালোবাসলে আমরা ভালো গান দিতে পারব।

সম্পাদনা : মোহাম্মদ আবদুল অদুদ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত