প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

প্রশান্ত মহাসাগরে প্লাস্টিক বর্জ্যে হুমকিতে প্রবালপ্রাচীর


আনন্দ মোস্তফা: সমুদ্র বিজ্ঞানীদের প্রকাশিত এক গবেষণা প্রবন্ধে দেখা গেছে সমুদ্রে বাড়তে থাকা প্লাস্টিক বর্জ্য প্রবালপ্রাচীরের ভবিষ্যতের জন্য মারাত্মক হুমকি হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রবালপ্রাচীরের জন্য হুমকির দিক দিয়ে পানির তাপমাত্রার বৃদ্ধির পরই প্লাস্টিক বর্জ্যের অবস্থান বলে জানিয়েছে সমুদ্র বিজ্ঞানীরা।

প্রশান্ত মহাসগরের একতৃতীয়াংশ প্রবালপ্রাচীর জরিপ করে ১১ বিলিয়নের বেশি রকমের প্লাস্টিক পাওয়া গেছে বলে জানায় বিজ্ঞানীরা। যেসব প্লাস্টিক বর্জ্য পাওয়া গেছে তার মধ্যে প্লাস্টিকের থলে, বোতল ও চালের বস্তা অন্যতম।

সবচেয়ে ভয়ঙ্কর বিষয় হলো, এই সব বর্জ্যের একতৃতীয়াংশের বেশি ভূমি থেকে সমুদ্রে নিক্ষেপ করা হয়েছে।

২০১১ সাল থেকে ২০১৪ সালের মধ্যে প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের চার দেশ থেকে ওই অঞ্চলের ১৫০টির বেশি প্রবালপ্রাচীরে জরিপ চালানো হয়।

জরিপে ইন্দোনেশিয়ার কাছের প্রাচীরগুলোতে সবচেয়ে বেশি প্লাস্টিক বর্জ্য পাওয়া গেছে। আর অস্ট্রেলিয়ার কাছেরগুলোতে সবচেয়ে কম।

প্লাস্টিক বর্জ্য প্রবালপ্রাচীরে রোগ ছড়িয়ে সম্ভাবনা ২০গুণ বাড়িয়ে দেয় বলে জানান গবেষকরা। রোগ ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি বেড়ে যাওয়ার পাশপাশি প্লাস্টিক বর্জ্যের কারণে কোরালের শাখা বিস্তার মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়। এছাড়াও প্লাস্টিক বর্জ্যের কারণে সূর্যের আলো ও অক্সিজেন ঠিক মত কোরালে পৌঁছায় না।

যুক্তরাষ্ট্রের ইথাকার কর্নেল ইউনিভার্সিটির গবেষক ড. জোলেয়াহ লাম্ব বলেন, ‘আমি বলতে পারি, জলবায়ু পরিবর্তনের পরিবর্তে এই মুহূর্তে প্লাস্টিক বর্জ্য সমুদ্রের জন্য সবচেয়ে বড় হুমকিতে পরিণত হয়েছে।’

পৃথিবীর ২৭ কোটি ৫০ লাখের বেশি মানুষ তাদের খাবার, উপকূলের সুরক্ষা, পর্যটন আয় ও সাংস্কৃতিক দিক দিয়ে কোরালপ্রাচীরে উপর নির্ভরশীল। বিবিসি

সর্বাধিক পঠিত