প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বিএনপি নেতা শরীফুল আলমের বাবার জানাজায় মানুষের ঢল

মাঈন উদ্দিন আরিফ: বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক ও কিশোরগঞ্জ জেলা সভাপতি শরীফুল আলমের বাবা হাজী মো. সিদ্দিক মিয়ার নামাজের জানাজায় মানুষের ঢল নেমেছে।

শুক্রবার বিকেল সাড়ে ৩টায় কিশোরগঞ্জ জেলার কুলিয়ার চর ডিগ্রি কলেজ মাঠে এ জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। জানাজা পড়ান মরহুমের ছোট ছেলে মাওলানা নাঈম হোসেন। এই দিকে জানাজায় অংশ গ্রহণ করতে সকাল থেকেই কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন জাগায় থেকে মরহুমের বাড়িতে আসতে শুরু করে সাধারণ মানুষ।

জনাজা শেষে মরহুম সিদ্দিক মিয়ার নিজ হাতে গড়া মাদ্রাসার সামনে পারিবারিক কবরস্থানে মায়ের কবরের পাশে চিরনিন্দ্রায় শায়িত হয়েছেন তিনি।

এর আগে গতকাল বৃহস্পতিবার সকালে রাজধানীর উত্তরায় নিজ বাসায় হঠাৎ গুরুত্বর অসুস্থ হয়ে পড়েন সিদ্দক মিয়া। চিকিৎসার জন্য গুলশান ইউনাইটেড হাসপাতালে নিয়ে আসলে কর্তবরত ডাক্তার তার হার্ডের রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়ায় জরুরী ভাবে সিসিইউতে ভর্তি করিয়ে দেন ।

ক্যাডোলজি প্রফেসর ডা. ক্যায়েসার নাসরুল্লাহর তত্বাবোধায়নে চলছিল শরীফুল আলমের বাবার চিকিৎসা। দীর্ঘ চার ঘন্টায়ও কোন উন্নতি না হওয়ায় বিকেল সাড়ে চারটায় তাকে ইনজিওগ্রাম করতে নিয়ে যান ডাক্তাররা। ইনজিওগ্রাম করিয়ে সিসিইউতে নিয়ে আসলে হঠাৎ আবারো হার্ড ব্লক হয়ে সন্ধ্যা ৭টা ১০ মিনিটে মারা যান সিদ্দিক মিয়া।

তার মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ করেন বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া ও দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বাবা হাজী মো. সিদ্দিক মিয়ার মাগফেরাত কামনায় তার শুভাঙ্খাকি ও আত্মীয় সজনসহ সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন বিএনপির সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক শরীফুল আলম।

এই দিকে বিএনপি নেতার বাবার মৃত্যুর খবর শুনে গতকাল হাসপাতালে ছুটে আসেছিলেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর ও দলের স্থায়ী কমিটির সদস্য মির্জা আব্বাস, ড. মঈন খান, ক্রিকেট বোর্ডের চেয়ারম্যান ও কিশোরগঞ্জের সংসদ সদস্য নাজমুল হাসান পাপন, চেয়ারপারসনের মিডিযা উইংয়ের কর্মকর্তা শায়রুল কবির খান, শামসুদ্দিন দিদার ও চেয়ারপারসনের গুলশান কার্যালের কর্মকর্তা প্রকোশলী মো. জসিম উদ্দিন, মুক্তিযোদ্ধা দলের সহ সভাপতি মনিরুল ইসলাম ইউসুফসহ কিশোরগঞ্জের বিভিন্ন স্থরের নেতাকর্মীরা।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত