প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

চীনা ‘ঋণের ফাঁদ’ নিয়ে উদ্বিগ্ন নন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী

হাসান : বড় বড় অবকাঠামো প্রকল্পগুলোতে চীনা সহায়তার কারণে যে ঋণের বোঝা বাড়ছে, সেগুলো নিয়ে উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কিছু দেখছে না পাকিস্তান। ওয়ার্ল্ড ইকোনমিক ফোরামের বার্ষিক সভায় অংশ নেয়ার ফাঁকে এক সাক্ষাতকারে দক্ষিণ এশিয় দেশটির প্রধানমন্ত্রী এ মন্তব্য করেন।

প্রধানমন্ত্রী শহীদ খাকান আব্বাসী বলেন, উচ্চাকাঙ্ক্ষী চায়না-পাকিস্তান ইকোনমিক করিডোর প্রকল্পের ব্যাপারে বলতে গেলে একটা আলাদা কমিটি রয়েছে যারা এই প্রকল্পের অধিকাংশ ঋণের ব্যাপারটা দেখে। এর অর্থ হলো, এতে জাতীয় ঋণ সেই অর্থে বাড়বে না।

সুইজারল্যান্ডের দাভোসে নিক্কি এশিয়ান রিভিউকে দেয়া সাক্ষাতকারে ঋণের উদ্বেগ প্রসঙ্গে আব্বাসী বলেন, ‘আমি মনে করি না, এই ধারণাটা সঠিক’। তিনি জানান যে, করিডোর প্রকল্পের দুটো মূল ধারণা রয়েছে – টেকসই অর্থনীতি এবং পরিবেশের সুরক্ষা। তিনি জানান, ‘সমস্ত প্রকল্পই মূলত এই দুই নীতির ভিত্তিতে গড়ে তোলা হয়েছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, করিডোর অবকাঠামো উন্নয়নের সাথে সাথে জন নিরাপত্তা শক্তিশালী করার মাধ্যমে পাকিস্তানের উপর আন্তর্জাতিক আস্থা বাড়বে। এতে করে শুধু চীনা নয়, যে কোন বিদেশী কোম্পানি এখানে বিনিয়োগে আত্মবিশ্বাসী হবে।

আব্বাসী বলেন, আরও দক্ষ বিদ্যুৎ উৎপাদন ব্যবস্থা এবং সড়ক উন্নয়নের কারণে পরিবহন ব্যয় কমে আসায় অর্থনৈতিকভাবে লাভবান হওয়ার আশা করছেন তিনি। তিনি বলেন, পাকিস্তানের গোয়াদার বন্দর প্রতিবেশী মধ্য এশিয়ার দেশগুলোর জন্যও উপকার নিয়ে আসবে।

বেল্ট অ্যান্ড রোড প্রকল্পের অংশ হিসেবেই করিডোর প্রকল্পকে এগিয়ে নিতে চায় চীন। পরিকল্পনা হলো, এর অধীনে পুরো পাকিস্তানে সড়ক, রেল ও জ্বালানি অবকাঠামো নির্মাণ করা হবে। এর মাধ্যমে চীনের পশ্চিম জিনজিয়াংয়ের কাশগরের সাথে গোয়াদার বন্দরের মাধ্যমে আরব সাগরের সংযোগ ঘটবে।

প্রকল্পের ৬২ বিলিয়ন ডলারের অধিকাংশই বহন করছে চীন। পাকিস্তান যদি এই ঋণ পরিশোধে সক্ষম না হয়, তবে সেটা নিয়ে তাদের উপর চাপ দেয়ার সুযোগ রয়েছে চীনের।

শ্রীলংকাতেও চীনা ঋণের পরিমাণ বেড়ে গিয়েছিল। ঋণের অঙ্ক সমতায় আনতে গত ডিসেম্বরে তারা হামবানতোতা বন্দরটি ৯৯ বছরের জন্য একটি চীনা কোম্পানির কাছে লিজ দেয় শ্রীলংকা সরকার। অনেকে উদ্বেগ জানিয়েছেন, পাকিস্তান হয়তো একই ধরনের ‘ঋণের ফাঁদে’ পড়তে পারে।-সাউথ এশিয়ান মনিটর।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত