প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একাদশ সংসদ নির্বাচনের রোডম্যাপ থেকে পিছিয়ে নির্বাচন কমিশন

জুয়াইরিয়া ফৌজিয়া: গত বছরের ডিসেম্বরে একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের জন্য ৩০০ আসনের সীমানার গেজেট প্রকাশের কথা থাকলেও সেটা এখনো করতে পারেনি নির্বাচন কমিশন। তাই নির্বাচনের জন্য ঘোষিত রোডম্যাপ থেকে অনেক পিছিয়ে তারা। তবে নির্বাচন কমিশন দাবি করছে এসব কাজ  শিগগিরই শেষ হবে।

বেশ কয়েকটি ধাপে ৩০০ সংসদীয় আসনের সীমানা নির্ধারিত হয়। এজন্য নীতিমালা ঠিক করার পর ভৌগলিক তথ্য, প্রশাসনিক সীমানা, ভোটার সংখ্যা বিবেচনায় নিয়ে এ কাজটি শুরু করতে হয়। এরপর আসনগুলোর খসড়া তালিকা প্রকাশ করে দাবি আপত্তির উপর শুনানী শেষে প্রকাশ করা হয় চূড়ান্ত তালিকা। সব মিলিয়ে এসব কাজ করতে সময় লাগে প্রায় ৬ মাস।

চলতি বছরের শেষে সীমানা নির্ধারনের কাজ শেষ হওয়ার কথা থাকলেও এখনও খসড়া প্রস্তুত হয়নি। কতগুলো আসনে পরিবর্তন আসবে তাও এখনও নিশ্চিত নয়। এমনকি সীমানা নির্ধারণ করতে রোডম্যাপে নতুন আইন করার কথা থাকলেও এখন আর তা হচ্ছে না।
২০০৮ এর নির্বাচনে ভৌগলিক অখন্ডতা, জনসংখ্যার ভিত্তি, প্রশাসনিক সুবিধা আর যাতায়াত ব্যবস্থার ওপর ভিত্তি করে যেভাবে ১৩১টি আসনে পরিবর্তন আনা হয়েছিল এবারও সেরকমই হতে যাচ্ছে।

শুধু তাই নয় কর্মপরিকল্পনার ওপর অক্টোবরের মধ্যে রাজনৈতিক দল ও সুশীল সমাজের পরামর্শ নেয়া ও ডিসেম্বরে সেসব পরামর্শ বই আকারে প্রকাশ করে সরকারের কাছে পাঠানোর কথা থাকলেও এখনও পাঠানো হয়নি।

নির্বাচন কমিশনার কবিতা খানম বলেন, শীগগিরই একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের কাজগুলো করা হবে।

এছাড়া রোডম্যাপ অনুযায়ী মার্চের পর থেকে জাতীয় নির্বাচনের আগ পর্যন্ত জাতীয় পরিচয়পত্র প্রস্তুত ও বিতরণ, ভোটকেন্দ্র স্থাপন এবং নির্বাচনে সংশ্লিষ্টদের সক্ষমতা বাড়ানোর কাজ করার হবে।

সূত্র : ইন্ডিপেন্ডেন্টে নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত