প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে আলোচনার আহ্বান ‘মানসিক বৈকল্য’: ইরান

আন্তর্জাতিক ডেস্ক: ইরানের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি এবং অন্যান্য প্রতিরক্ষা বিষয় নিয়ে আমেরিকা ও তার মিত্রদের আলোচনার আহ্বানকে  মানসিক বিকারগ্রস্ততা বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের সামরিক বাহিনীর মুখপাত্র ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মাসুদ জাযায়েরি। পার্স টুডের খবর।

তিনি বুধবার বলেন, যেসব দেশ ইরানের সামরিক শক্তি নিয়ে আলোচনা করতে চায় তারা সময়ের ব্যবধানে আবারো প্রমাণ করল যে, এসব দেশ স্বৈরতান্ত্রিক ও বলদর্পী শক্তি। জেনারেল জাযায়েরি বলেন, পূর্ব নির্ধারিত পরিকল্পনা ও লক্ষ্য নিয়ে ইরানের সামরিক বাহিনী দেশের প্রতিরক্ষা সক্ষমতা বাড়ানোর জন্য সক্রিয়ভাবে চেষ্টা করছে এবং একইসঙ্গে শত্রুরা যখন ইরানকে সামরিক হামলার হুমকি দিচ্ছে তখন প্রতিরক্ষা শক্তি বাড়িয়ে তাদেরকে হতাশ করার পদক্ষেপ অব্যাহত থাকবে।

একইদিন ইরানের সাবেক প্রতিরক্ষামন্ত্রী হোসেইন দেহকান এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, “আমেরিকা, সৌদি আরব ও ইসরাইল ইরানের সামরিক শক্তিকে সীমিত করে রাখতে চায় এবং এখন তারা ইউরোপকে এই অবস্থানে আনার চেষ্টা করছে।” তিনি জানান, ভূমি থেকে ভূমিতে ও ভূমি থেকে আকাশে নিক্ষেপযোগ্য ক্ষেপণাস্ত্র শক্তি বাড়ানোর বিষয়টিকে ইরান প্রাধ্যান্য দিচ্ছে।

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প সম্প্রতি দাবি করেছেন, ২০১৫ সালে সই হওয়া পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করে ইরান ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র তৈরি করছে। তিনি ফ্রান্স, ব্রিটেন ও জার্মানির প্রতি আহ্বান জানিয়ে তার ভাষায় বলেছেন, পরমাণু সমঝোতা লঙ্ঘন করে ইরান যে ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি পরিচালনা করছে তা বন্ধ করতে হবে; অন্যথায় তিনি পরমাণু সমঝোতা বাতিল করবেন।

নভেম্বরের প্রথম দিকে ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট ইমানুয়েল ম্যাকরন ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিয়ে তার ‘মারাত্মক উদ্বেগের কথা’ জানিয়েছেন। এছাড়া, চলতি সপ্তাহের প্রথম দিকে ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী বরিস জনসন মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সঙ্গে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন, ইরানের ব্যালিস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি সম্পর্কে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের দাবি মেটানোর পথ খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন তারা। তবে ইরান পরিষ্কার করে বলে আসছে, তেহরানের ক্ষেপণাস্ত্র কর্মসূচি নিতান্তই নিজস্ব প্রতিরক্ষার জন্য পরিচালিত হচ্ছে এবং তা নিয়ে কখনো কোনো আলোচনা করা হবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত