প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শুল্ক সেবা সূচকে বাংলাদেশ পিছিয়ে

হ্যাপী আক্তার : শুল্ক সেবা সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান এখনো পিছিয়ে। আমদানি তথ্য স্বয়ংক্রিয়ভাবে নথিভুক্ত হয়। কিন্তু রপ্তানি তথ্যের বেলায় গড়িমসি করেন শুল্ক কর্মকর্তারা। শুল্কায়নের এই সমস্যা দূর করতে বন্দরগুলোতে যোগ হয়েছে স্বয়ংক্রিয় ব্যবস্থা। তার পরেও বাংলাদেশ শুল্ক সূচকের অবস্থা এখনো তলানিতেই। এমন বাস্তবতাতেই আগামিকাল পালিত হবে আন্তর্জাতিক শুল্ক দিবস।

ব্যবসায় পরিবেশের আন্তর্জাতিক মানদন্ডে, ১৯০ দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান গত বছরের চেয়ে একধাপ পিছিয়ে ১৭৭ এখন। বিভিন্ন সূচকের মধ্যে সীমান্ত বাণিজ্য সূচকের মানও যথেষ্ট খারাপ-১৭৩। পরিস্থিতির উন্নয়ন করতে দেশের বন্দরগুলোতে শুল্কায়নে যুক্ত হয়েছে স্বয়ংক্রিয় শুল্কায়ন পদ্ধতি অটোমেটিক সিস্টেম ফর কাস্টম ডেটা বা এসওয়াইকোডা পদ্ধতি । বন্দরে ব্যবসায়িক পরিবেশ উন্নয়নের এই সংস্কার চেষ্টার প্রশংসা করছেন ব্যবসায়ীরা। যদিও বেশ কয়েকটি প্রতিবন্ধকতা এখনো ভোগাচ্ছে ব্যবসায়ীদের।

ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ফোরাম অব বাংলাদেশর প্রেসিডেন্ট হাফিজুর রহমান খান বলেছেন, বলা হচ্ছে বন্দরে কন্টেইনার স্কেনার বসানো হবে তবে এখনো বসানো হয়নি, তবে কাজ চলছে।

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদপ্তরের মহাপরিচালক ড. মইনুল খান বলেছেন, ব্যবসায়ীদের হয়ারানি শুন্যের কোঠায় নামিয়ে আনতে শুল্কায়নে যোগ হচ্ছে অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি। তাছাড়াও অন্যান্য উদ্যোগ আছে সেগুলোকেও কার্যক্রমের কাজ চলছে।

আন্তর্জাতিক কাস্টমস সংস্থার ডঈঙ এর সহযোগিতায় বিশ্বস্ত ব্যবসায়ী বা অথরাইজড ইকোনোমিক অপারেটর কর্মসূচি বাংলাদেশেও শুরু হয়েছে। এই কর্মসূচির মাধ্যমে সনদ পাপ্ত ব্যবসায়ীরা বাংলাদেশের বাইরেও অগ্রাধিকার শুল্ক সেবা পাবেন। সূত্র : ডিবিসি নিউজ

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত