প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

একুশে বই মেলায় আসছে ‘আমি আর কোথাও যাব না’

ইমরান মিয়া ও মাহফুজ উদ্দিন খান: এবারের অমর একুশে বই মেলায় প্রকাশ হয়েছে নবীন কথা সাহিত্যিক মন্জুর এ এলাহীর দ্বিতীয় বই ‍‘আমি আর কোথাও যাব না’ ।

বইটি প্রকাশ করেছে জনপ্রিয় প্রকাশনা প্রতিষ্ঠান ‘সাহিত্যদেশ প্রকাশনী’।

প্রকাশনা প্রতিষ্ঠানের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, প্রেমবিরহকে পুজি করে এই সাহিত্যিক তাঁর বইটি রচনা করেছেন। সমাজের নানান অসঙ্গতি তুলে ধরেছেন বুদ্ধিবৃত্তিক চরিত্রের সৃষ্টির বেড়াজালে। অসাধারণ লেখনীর জন্যই বইটি প্রকাশে আগ্রহী ছিল প্রতিষ্ঠানটি।

বই, বইমেলা ও লেখালেখি নিয়ে নিজের ভাবনার কথা জানিয়েছেন তরুন এই কথা সাহিত্যিক।

নবীন কথা সাহিত্যিক মন্জুর এ এলাহী বলেন, আমার এই বইটিতে প্রেমবিরহের চিত্র তুলে ধরার চেষ্টা করেছি। সমাজের সাধারণের জীবন আবহ আমার সৃষ্টি কর্মের মাধ্যমে ফুটিয়ে তোলার নিরন্তর চেষ্টা ছিল। বাকিটা পাঠক পড়েই বুঝতে পারবে।

এই তরুন কথা সাহিত্যিকের মতে, বইটি সব বয়সের পাঠকদের উপযোগী করেই সাজানো হয়েছে তাই পাঠকের হাতে ভাল কিছু তুলে দিতে সক্ষম হয়েছি বলে মনে করি।

এই তরুন লেখক বলেন, মেলায় প্রাপ্তির বিষয় অনেকগুলোই। তন্মধ্যে আগের বছরগুলোর তুলনায় এবার মেলায় জায়গা প্রসারিত হয়েছে,স্টল সংখ্যাও বেড়েছে, নবীন লেখকদের বইয়ের সংখ্যা বাড়ছে,পাঠকদের সংখ্যাও তুলনামূলকভাবে দিনে দিনে বাড়বে ।এসব অবশ্যই বইমেলায় আমার কাছে প্রাপ্তির বিষয় বলেই মনে হয়। আমাদের বইমেলাটা হলো পাঠক-লেখকের মিলনমেলা। সে হিসেবে এই মেলা নিয়ে প্রত্যাশাও কম না।

এই তরুন সাহিত্যিক তাঁর ভবিষ্যত পরিকল্পনা সম্পর্কে বলেন, আমি মনে করি-সাহিত্যচর্চা হলো হৃদয়ের টান থেকে হয়। লেখার প্রতি ভেতরের প্রেম-ভালোবাসা থেকেই হয় সাহিত্যের নব নব জন্ম। আর তাই আমি সাহিত্যচর্চাটা মনের ভাললাগা থেকেই করে থাকি। এজন্য সাহিত্য নিয়ে আলাদা কোন পরিকল্পনা মাথায় কখনো ভর করেনি। তবে সারাজীবন সাহিত্যচর্চা করে যেতে চাই। মৃত্যুশয্যায় থেকেও আমি লিখে যেতে চাই আমার জন্য এবং প্রিয় পাঠকের জন্য।লেখার মাঝেই সবসময় মনের খোড়াক খুঁজে নিতে চাই।তাই ধরতে পারেন এটাই আমার সাহিত্য নিয়ে ভবিষ্যত পরিকল্পনা।

প্রসঙ্গত, এর আগে গত বছর ‘সাহিত্যদেশ প্রকাশনী’ তার প্রথম বই ‘রক্তাক্ত চিঠি’ প্রকাশ করেছিল।

সর্বাধিক পঠিত