প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মাহাথির মোহাম্মদের কড়া জবাব

ওয়ালি উল্লাহ সিরাজ: ইসলাম নিয়ে ড. মাহাথির মোহাম্মদের জ্ঞান সম্পর্কে প্রশ্ন তোলায় ইসলামী সমালোচকদের কড়া জবাব দিলেন সাবেক মালেশীয় প্রেসিডেন্ট ড. মাহাথির মোহাম্মদ। ইসলামকে ব্যবহার করে অসৎ কাজের ন্যায্যতা প্রমাণ করা কিছু মানুষকে উদ্দেশ্য করে তিনি একটি ব্লগ পোস্ট লিখেন।

তিনি লিখেন, শূকরকে জবেহ দেওয়ার সময় যদি আল্লাহর নাম নেওয়া হয় তাহলে কি সেটা হালাল হয়ে যাবে? অবশ্যই না। আমি আরও বলতে চাই, এইযে সরকারি তহবিল থেকে কিছু অসৎ মানুষ বিপুল পরিমাণ অর্থ চুরি করে নিয়ে যাচ্ছে, এই চুরি করা অর্থ কি হারাম নয়? অবশ্যই হারাম। এগুলো যদি হারামই হয়ে থাকে তাহলে এই অর্থ দিয়ে উমরাহ অথবা হজ পালন করে এগুলো হালাল করা সম্ভব?

তিনি আরও লেখেন, আমরা যদি না জেনে চুরি করা অর্থে হজে যাই, তাহলে কি তা আমাদের অপরাধ? অপরাধ তখনই যখন আমরা জেনে শুনে চুরি করা অর্থে হজ অথবা উমরাহ পালন করতে যাই।
তিনি এরপর বলেন, হ্যাঁ, এমন অনেক ইসলামী শিক্ষা এবং রীতিনীতিই আমার কাছে বিভ্রান্তিকর মনে হয়। তবে আমি তা নিয়ে পরে কথা বলব।

তিনি এও মানেন যে তিনি একজন ইসলামিক স্কলার নন, তবে তিনি দাবী করেন যে ইসলাম সম্পর্কে তার যথেষ্ট ধারণা রয়েছে।

তিনি এই ব্যাপারে লিখেন, তারা (ইসলামী সমালোচক) বলে যে আমি ইসলাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানি না এবং আমি আরবী বুঝি না। আমাকে দেখেও নাকি তাদের আলেমের মত মনে হয় না। আমাকে অনেকেই ইসলাম সম্পর্কে বিস্তারিত জানার জন্যে এবং বিশেষজ্ঞের বক্তৃতা শোনার জন্যে পরামর্শ দিয়েছেন।

গত শনিবার বিতর্কিত মালেশীয় ধর্মপ্রচারক যামিহান মাত জিন মাহাথির পুনরায় রাজনীতিতে ফেরা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন। তিনি বলেছিলেন, এই বৃদ্ধ বয়সে মাহাথির উচিৎ কোনো এক মাদরাসায় নাম লিখিয়ে নামাজে সময় দেওয়া।

তার এই মন্তব্য নিয়েই ক্ষীপ্র হয়ে ওঠেন ড. মাহাথির মোহাম্মদ। তার এই সাম্প্রতিক ব্লগের কারণে অনেক সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে ড. মাহাথির মোহাম্মদকে। তবে তার দাবী, ইসলাম সম্পর্কে তার যথেষ্ট জ্ঞান রয়েছে এবং তা দিয়েই তিনি মালয়েশিয়ার রাজনীতিতে পুনরায় ফিরে আসবেন। সূত্র : মালয়েশিয়া টুডে

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত