প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

কালো কলোপ ব্যবহার করার বিধান

সাইদুর রহমান : সাদা চুল রঙিন করতে যেসব জিনিস ব্যবহৃত হয় তন্মেধ্যে কিছু রয়েছে যেগুলো ব্যবহার করলে শুকানোর পর জমে যায় এবং শরীরের চামড়ায় আবরণ পড়ে। ফলে ওযু ও গোসলের পানি চামড়াতে প্রবেশ করে না এবং ওযু ও গোসল কোনটাই হয় না। এজন্য এ ধরণের কলোপ ব্যবহার করা শরীয়তে নিষিদ্ধ। ফতুয়ায়ে আলমগীরি, পৃ: ১-৪, খন্ড – ১)

এছাড়াও চুল রঙিন করতে কালো কলোপ ব্যবহার করা হয়। কালো কলোপ ব্যবহার সর্ম্পকে হাদীসে চরম শাস্তির কথা বলা হয়েছে। সর্বসম্মতিক্রমে হারাম। এ বিষয়ে হাদীসে এসেছে, হযরত আব্দুল্লাহ ইবনে আব্বাস (রা.) নবী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম হতে আরো বর্ণনা করে বলেন, নবীজী সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, শেষ যামানায় এমন কিছু লোক বের হবে যারা তাদের চুল-দাড়ী কবুতরের পাখার ন্যায় কড়া কালার দিয়ে কালো করবে, এরা জান্নাতের ঘ্রানও পাবে না। (আবু দাউদ, হাদিস নং ৪২১২, নাসায়ী, হাদিস শরীফ নং ৯২৯৩)
অন্য আরেক হাদীসে এসেছে, হযরত আবু দারদা (রা.) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, যারা কালো খেজাব ব্যবহার করবে কেয়ামতের দিন আল্লাহ পাক তাদের চেহারা কালো করে দেবেন। (মাজমাউয যাওয়ায়েদ ৫/১৬৩, হাদিস শরীফ নং ৮৮১৪)

তবে লাল এবং হলুদ রঙের আবরনমুক্ত যা প্রলেপ পড়ে না এমন খেজাব বা কলোপ ব্যবহার করা উত্তম। যা দাড়ি এবং চুলে লাগানো যাবে। এবং প্রলেপযুক্ত না হয়। হাদীসে এসেছে, হযরত আবু যর গিফারী (রা.) থেকে বর্ণিত তিনি বলেন, দয়াল নবীজী ছল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম ইরশাদ করেছেন, নিশ্চয়ই এই সাদা রঙ পরিবর্তনের জন্য উত্তম হলো মেহেদি ও কাতাম। (মুছান্নাফ আব্দুর রাজ্জাক-২০১৮, ইবনে মাযাহ- ৬৩২২, তিরমিযী-১৮৪৯)

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত