প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

শেখার অক্ষমতায় দায়ী জিন সনাক্ত করলেন ভারতীয় বিজ্ঞানীরা

রাশিদ রিয়াজ : ভারতীয় বিজ্ঞানীরা এমন একটি জিন সনাক্ত করেছেন যা মানুষের শ্ক্ষিার ক্ষেত্রে অক্ষমতার জন্যে দায়ী। ‘ডিসলেক্সিয়া’ ও ‘প্রোটোক্যাথেরিন’ নামে জিনই শেখার অক্ষমতার জন্যে দায়ী। ফলে আগেভাগেই এধরনের জিন সনাক্ত করে শেখার অক্ষমতা বা এধরনের ত্রুটি লাঘবে চিকিৎসা করা সম্ভব হবে।

ই বায়োমেডিসিন জার্নালে এক গবেষণা পত্রে বলা হয়েছে, ভারতের মহারাষ্ট্রে এমন একটি পরিবার বেছে নিয়ে বিজ্ঞানীরা শেখার অক্ষমতা নিয়ে গবেষণা করেন যে পরিবারটি তিন প্রজন্ম ধরে এধরনের অক্ষমতায় ভুগছিল। সুব্রত সিনহা ও নন্দিনী চট্টোপাধ্যায় ওই গবেষক দলের নেতৃত্ব দেন। গবেষণার সময় বিজ্ঞানীরা ওই পরিবারের সদস্যদের মাঝে ১৭টি বৈশিষ্ট চিহ্নিত করেন যা শেখার অক্ষমতার জন্যে দায়ী এবং এসব বৈশিষ্টই ডিসলেক্সিয়ার কারণ হিসেবে কাজ করে। এই প্রথমবারের মত ডিসলেক্সিয়ায় ওসব বৈশিষ্ট জড়িত হয়ে শেখার অক্ষমতা সৃষ্টি করছে বলে বিজ্ঞানীরা জানতে পারেন।

বিশ্বে মানুষের জিনে এধরনের ডিসলেক্সিয়ার প্রভাব এতদিন ৫ থেকে ১২ ভাগ মনে করা হলেও ভারতীয় গবেষকদের গবেষণায় তা ৯ থেকে ১১ ভাগ বলে প্রমাণিত হয়েছে।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত