প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মিয়ানমার রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি

রাজেকুজ্জামান রতন : আমাদের দেশে আসা রোহিঙ্গাদেরকে ফেরত পাঠানোর জন্য নতুন করে যে চুক্তি করা হয়েছিল, সেটি সঠিকভাবে করা হয়নি। চুক্তিতে বলা হয়েছে, দিনে ৩০০ করে সপ্তাহে ১৫০০ জন রোহিঙ্গা ফেরত পাঠানো হবে। কিন্তু সেই চুক্তিটিও বাতিল করা হয়েছে। আয়োজনটি যতখানি করা হয়েছিল ততটুকুও কার্যকর করা হয়নি। মিয়ানমার সরকারও রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার জন্য সেভাবে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি। এখানে যতটুকু কার্যকর হওয়ার কথা, আন্তরিকতার অভাবে সেটি হয়নি। এক্ষেত্রে আমাদের বাংলাদেশ সরকারের গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করা উচিত। জাতীয় এবং আন্তর্জাতিকভাবে পদক্ষেপ নেওয়া উচিত।

আন্তর্জাতিক মাধ্যমগুলোকে কাজে লাগিয়ে মিয়ানমারের উপর চাপ সৃষ্টি করতে হবে। রোহিঙ্গাদের ফেরত নেওয়ার জন্য যা যা করা লাগে তা যেন সঠিকভাবে করা হয়, তার জন্য চাপ দিতে হবে। মিয়ানমার সরকার রোহিঙ্গাদের দেশ থেকে বের হতে বাধ্য করেছে, তাদের ঘরবাড়ি পুঁড়িয়ে দিয়েছে। এখন আবার রোহিঙ্গাদের দেশে ফিরিয়ে নেবার কথা বলেও, তালবাহানা করছে।

বর্তমান চুক্তিতে বলা হয়েছিল যে, বছরে ৭৫ থেকে ৮০ হাজার রোহিঙ্গা ফেরত নিবে সেক্ষেত্রে ১০ লক্ষ রোহিঙ্গা মিয়ানমারে ফেরত যেতে প্রায় ১৫ বছর লেগে যাবে। যা একটি দীর্ঘ সময়। যদি এভাবে চলতে থাকে, তাহলে শুধু আলোচনা, চুক্তি থাকবে, কিন্তু সঠিকভাবে রোহিঙ্গাদের প্রত্যাবাসন কার্যকর করা হবেনা। আমি মনেকরি এ রোহিঙ্গা বিষয়টি নিয়ে আমাদের দেশের সরকারকে জরুরিভাবে একটি সঠিক সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।

পরিচিতি : কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য, বাসদ
মতামত গ্রহণ : রাশিদুল ইসলাম মাহিন
সম্পাদনা : গাজী খায়রুল আলম

সর্বাধিক পঠিত