প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

জয়নাবের হত্যাকারীকে গ্রেফতার করা হয়েছে: শাহবাজ শরিফ

অনলাইন ডেস্ক : পাকিস্তানের পাঞ্জাব প্রদেশের কাসুর শহরে ছয় বছরের শিশু জয়নাবকে ধর্ষণ ও হত্যায় দায়ী যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রাদেশিক সরকারের মুখ্যমন্ত্রী শাহবাজ শরিফ।

 

মঙ্গলবার সন্ধ্যায় এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি ঘোষণা করেন জয়নাবের খালার বাড়ির কাছাকাছি বাড়িতে বসবাস করা ২৩ বছরের যুবক ইমরান আলী গত দুই বছরে জয়নাবসহ ছয় থেকে সাতটি শিশুর ধর্ষণ ও হত্যার ঘটনায় দায়ী। এর মধ্য দিয়ে জয়নাবের লাশ উদ্ধারের ১৪ দিনের মাথায় অপরাধী ধরা পড়ার ঘোষণা এলো।

গত ৪ জানুয়ারি কোরআন ক্লাস শেষে ফেরার পথে নিখোঁজ হয় পাঞ্জাবের কাসুরের ছয় বছরের শিশু জয়নাব আনসারি। বাবা-মা সৌদিতে ওমরাহ পালনে যাওয়ায় কয়েকদিনের জন্য খালার বাড়িতে থাকা শিশুটির মরদেহ ৯ জানুয়ারি শহরের একটি আবর্জনার স্তুপে পাওয়া যায়। ময়নাতদন্তে নিশ্চিত হওয়া যায় ধর্ষণের পর হত্যার শিকার সে। এক বছরের মধ্যে বারোতম শিশু হিসেবে ধর্ষণের শিকার হওয়া জয়নাবের মৃত্যুতে শুরু হয় বিক্ষোভ।

কাসুরের বিক্ষোভে পুলিশের গুলিতে দুইজন নিহত হলে পাকিস্তানের বিভিন্ন শহরে ছড়িয়ে পড়ে সেই বিক্ষোভ। পাঞ্জাব পুলিশের পক্ষ থেকে ডিএনএ পরীক্ষার বরাত দিয়ে জানানো হয় আরও সাতটি শিশু ধর্ষণের ঘটনায় জড়িত রয়েছে এক যুবক। অপরাধীকে ধরতে গঠন করা হয় যৌথ তদন্ত দল। চারটি আলাদা রাষ্ট্রীয় সংস্থা এই মামলার রহস্য উদযাটনে নামে।

মঙ্গলবার সংবাদ সম্মেলনে শাহবাজ শরিফ বলেন, আমাদের সম্মিলিত প্রচেষ্টা ফল বয়ে এনেছে। আর গ্রেফতার করা হয়েছে ওই অপরাধীকে।

তিনি জানান সাড়ে এগারোশো সন্দেহভাজন মানুষের ডিএনএ পরীক্ষার পর ইমরানের সঙ্গে অপরাধ স্থলে পাওয়া ডিএনএ শতভাগ মিলে গেছে। এছাড়া নিজের কৃতকর্ম স্বীকার করেছে ইমরান।

শাহবাজ বলেন, ‘এই ঘটনা প্রমাণ করে জাতি ঐক্যবদ্ধ হলে আমরা যেকোন কিছু অর্জন করতে পারি।’অপরাধীকে গ্রেফতারের মধ্য দিয়ে তদন্তের প্রথম পর্যায় শেষ হয়েছে মন্তব্য করে তিনি বলেন, আইন অনুমতি দিলে এই অপরাধীর প্রকাশ্যে ফাঁসি হওয়া উচিত।

সূত্র : বাংলা ট্রিবিউন

 

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত