প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বাংলাদেশি নারীর শ্লীলতাহানি, বিএসএফ সদস্য গ্রেপ্তার

কলকাতা প্রতিনিধি: কলকাতা-ঢাকার মধ্যে চলাচলকারী মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনে গতকাল সোমবার এক বাংলাদেশি নারী যাত্রীর শ্লীলতাহানির ঘটনায় ট্রেনটিতে নিরাপত্তার দায়িত্বে নিয়োজিত ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বিএসএফের সদস্যকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। গতকালই বিএসএফের ওই জওয়ানকে রেল পুলিশ গ্রেপ্তার করে।

অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, সোমবার সকালে কলকাতা স্টেশন থেকে ঢাকার উদ্দেশে ছেড়ে যায় মৈত্রী এক্সপ্রেস ট্রেনটি। ট্রেনটির প্রথম শ্রেণির শীতাতপনিয়ন্ত্রিত কক্ষে উঠেছিল বাংলাদেশের একটি পরিবার। কলকাতা স্টেশন ছাড়ার পর দমদম স্টেশন ও বারাকপুরের মাঝামাঝি স্থানে ট্রেনটি পৌঁছার পর ওই পরিবারের নারী যাত্রী শৌচাগারে ঢুকছিলেন। এ সময় ট্রেনের দায়িত্বে থাকা বিএসএফের এক জওয়ান তাঁর পিছু নেন। ওই নারী যাত্রীর সঙ্গে তাঁর ধস্তাধস্তি হয়। বিএসএফের ওই জওয়ান বন্দুক উঁচিয়ে ওই নারী যাত্রীকে হুমকি দেন। ধস্তাধস্তির সময় ওই নারীর নাকফুল পড়ে যায়।

পরে ওই নারীযাত্রী তাঁর আসনে ফিরে ঘটনাটি তাঁর স্বামীকে জানান। তাঁর স্বামী সঙ্গে সঙ্গে বিষয়টি জানান ট্রেনে অবস্থানরত টিকিট পরীক্ষককে। গেদে স্টেশনে পৌঁছার পর টিকিট পরীক্ষকের সঙ্গে পরিবারটি ওই স্টেশনের ব্যবস্থাপককে ঘটনাটি জানায় এবং লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর গেদে স্টেশনে সাধারণ যাত্রীরা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন এবং অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ানকে গ্রেপ্তারের দাবি তোলেন। ঘটনার যথাযথ বিচার হবে বলে রেল কর্তৃপক্ষ আশ্বাস দেওয়ার পর ট্রেনটি বাংলাদেশের উদ্দেশে গেদে স্টেশন ছেড়ে যায়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঘটনাটি দমদম জিআরপির এলাকায় ঘটায় ওই থানায় মামলা হয়। পরে রেল পুলিশ বিএসএফের ওই জওয়ানকে গ্রেপ্তার করে দমদম জিআরপি থানায় হস্তান্তর করে।

আজ মঙ্গলবার রাতে কলকাতার পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ কর্মকর্তা রবি মহাপাত্রের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি ঘটনার সত্যতার নিশ্চিত করে প্রথম আলোকে বলেন, অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ানকে রেল পুলিশ গ্রেপ্তার করে দমদমের জিআরপির হাতে তুলে দিয়েছে। ঘটনাটি এখন তদন্ত করছে দমদম জিআরপি। বিষয়টি বিএসএফের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদেরও জানানো হয়েছে।

এর আগে মৈত্রী ট্রেনের নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিল রেল পুলিশ (জিআরপি) ও রেল রক্ষী বাহিনীর (আরপিএফ) হাতে। গত নভেম্বর থেকে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার সেই দায়িত্ব রেল পুলিশের পরিবর্তে তুলে দেয় বিএসএফের হাতে। বিএসএফ এই দায়িত্ব পালন করে কলকাতা স্টেশন থেকে পশ্চিমবঙ্গের গেদে সীমান্ত পর্যন্ত। বর্তমানে এই দায়িত্বে রয়েছেন বিএসএফের ৯৯ ব্যাটালিয়নের ২০ জন সদস্য।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত