প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ভারতের শাসক জোট থেকে বেরিয়ে যাবার সিদ্ধান্ত নিলো শিবসেনা

আশিস গুপ্ত ,নয়াদিল্লি: ভাঙ্গন ধরলো ভারতের শাসক জোট ন্যাশনাল ডেমোক্র্যাটিক এলায়েন্স বা এনডিএ তে।বিজেপি’‌র সঙ্গ ছাড়ার সিদ্ধান্ত নিল শিবসেনা।২০১৯-এর লোকসভা নির্বাচনে একলা লড়ার কথা ঘোষণা করে দিল শিবসেনা । একই বছর মহারাষ্ট্রের বিধানসভা নির্বাচনেও একই পথে হাঁটবে তারা।মঙ্গলবার কর্মসমিতির বৈঠকে বসেছিল শিবসেনা নেতৃত্ব। সেখানেই বিজেপি-র সঙ্গে বা এনডিএ-র মধ্যে থেকে ভোটে না লড়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বিজেপি-শিবসেনার সম্পর্ক আজকের নয়, নয়ের দশকে বালাসাহেব ঠাকরে, অটলবিহারী বাজপেয়ী, লালকৃষ্ণ আডবাণীরা এই জোটে সিলমোহর দেন। এনডিএ জোটের অন্যতম পুরনো শরিক শিবসেনা। মহারাষ্ট্রে শিবসেনার সঙ্গেই বিজেপির জোট সরকার ক্ষমতায় রয়েছে।

যদিও সেখানে বিজেপির সঙ্গে নিত্য বিবাদ লেগে রয়েছে তাদের। কৃষিঋণ মকুবের দাবি থেকে শুরু করে একাধিক ইস্যুতে বিজেপির সঙ্গে শিবসেনার বিরোধ তুঙ্গে।সাম্প্রতিক অতীতে শিবসেনা নেতৃত্বের একাধিক মন্তব্য প্রায়ই অস্বস্তিতে ফেলেছে মোদী-অমিত শাহদের। এমনকী, মোদীর ‘কংগ্রেস-মুক্ত’ হওয়ার স্লোগানকে কটাক্ষ করতে শোনা গিয়েছে শিবসেনা নেতৃত্বের মুখে। মোদীর সেই মন্তব্যের কটাক্ষ করে সোমবারই শিবসেনা নেতা সঞ্জয় রাউত বলেছিলেন, ‘‘কংগ্রেস একটি ইতিহাস। কারও কথায় তাদের এ ভাবে নির্মূল করা যায় না। অতীতেও তারা ছিল। এখনও আছে। ভবিষ্যতেও থাকবে।’’এর আগে বৃহন্মুম্বই পুরনিগম ভোটেও শিবসেনা আলাদা লড়াই করে।

আর এ দিন সেনা প্রতিষ্ঠাতা বালাসাহেব ঠাকরের জন্মদিনেই জোট ভেঙে পুরোপুরি বেরিয়ে আসার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। অনেকে মনে করছেন, ২০১৯ সালের ভোটের দিকে নজর রাখতে চায় সেনা। কারণ, বিজেপি বিপাকে পড়লে জোটে দর বাড়বে তাদের। তবে তলে তলে বিজেপি বিরোধী আঞ্চলিক দলগুলোর যে মঞ্চ তৈরি হচ্ছে তার সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে শিবসেনা।নভেম্বরে তৃণমূলনেত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে বৈঠক সেরেছিলেন সেনা প্রধান উদ্ধব।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত