প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

হেরে গেলো জিম্বাবুয়ে – ফাইনালে কাকে পাবে বাংলাদেশ?

এল আর বাদল : ত্রিদেশীয় সিরিজের প্রথম লেগে বাংলাদেশ টানা দুই ম্যাচ জিতে বোনাস পয়েন্ট নিয়ে ফাইনালে ওঠার পর একটি প্রশ্নই সর্বত্র ঘুরপাক খাচ্ছে স্বাগতিকরা ফাইনালে পাবে কাকে? এ প্রশ্নের উত্তর আজও পাওয়া যায়নি। বাঁচা-মরার লড়াইয়ে বাংলাদেশের কাছে অসহায় আত্মসমার্পণ করে ক্রিকেট ভক্তদের প্রশ্নের মাঝেই রেখে গেলো জিম্বাবুয়ে। তারা মাশরাফিদের কাছে ম্যাচ হারলো ৯১ রানে। এবার তাকিয়ে থাকতে হবে বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যাচে। ওই ম্যাচেও যদি শ্রীলঙ্কা হেরে যায়, তখন জিম্বাবুয়ে আর লঙ্কার ভাগ্য নির্ধারণ হবে রান রেটে। কারণ চলমান এই সিরিজে দুই দলই একে অপরের বিরুদ্ধে একবার করে জিতেছে।
এই সিরিজে মাশরাফি, সাকিব, তামিমদের রুখে দিতে পারছে না জিম্বাবুয়ে ও সাবেক বিশ্বকাপ জয়ী শ্রীলঙ্কা। ক’দিন আগে জিম্বাবুয়ে তাদের মাটিতে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে সিরিজ জিতেছিলো, সেই জিম্বাবুয়ে যেনো হালে পানি পাচ্ছে না মিরপুরের মাঠে। এই সিরিজের ফাইনালে খেলতে হলে তাদের ‘যদি-কিন্তু’র উপর ভর করে আগামী বৃহস্পতিবার বাংলাদেশ-শ্রীলঙ্কার মধ্যকার ম্যচের ফলাফলের দিকে তাকিয়ে থাকতে হচ্ছে। লঙ্কানরা যদি হেরে যায় বড় ব্যবধানে, তাহলে ফাইনালে খেলার সম্ভাবনার দ্বার উম্মোচিত হবে জিম্বাবুয়ানদের। সিরিজের শেষ ম্যাচে মাশরাফিরা হাথুরুসিংহের দলকে কতোটা ধাক্কা দিতে পারবে, সে প্রশ্নটাও কিন্তু থেকে যায়। টিম বাংলাদেশের অধিনায়ক মাশরাফি সিরিজ মাঠে গড়াবার আগে হুংকার দিয়েছিলেন, বাংলাদেশের মাটিতে লাল-সবুজ দলের বিরুদ্ধে হাথুরু জিততে পারবে না। মাশরাফির প্রত্যাশা আর প্রাপ্তি দুটোই যেনো এক হয়ে গেছে ১৯ জানুয়ারি শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে। সিরিজের তিন তিনটি ম্যাচেই প্রতাপ ছড়ানো জয় পেয়েছে বাংলাদেশ।

আজ মিরপুর স্টেডিয়ামে তারা ৯১ রানে জিম্বাবুয়েকে হারিয়েছে। সিরিজে নিজেদের প্রথম দুই ম্যাচে বড় জয় পেয়ে আগে থেকেই টাইগাররা ফাইনাল নিশ্চিত করে রেখেছিল।

এ জয়ের ফলে পয়েন্ট টেবিলে আরও শক্ত অবস্থানে বাংলাদেশ। অন্যদিকে, জিম্বাবুয়ে হারলেও তাদের ফাইনালে খেলার স্বপ্ন রয়েছে। বর্তমানে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কা উভয় দলেরেই পয়েন্ট চার করে।

এদিন বাংলাদেশের দেয়া ২১৭ রানের জয়ের টার্গেটে ব্যাট করতে নেমে ৩৬.৩ ওভারে ১২৫ রান সংগ্রহ করে অলআউট হয় জিম্বাবুয়ে। দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৯ রান করেন সিকান্দার রাজা। বাংলাদেশের পক্ষে সাকিব আল হাসান ৩টি, মাশরাফি বিন মুর্তজা, সানজামুল ও মুস্তাফিজ ২টি করে উইকেট শিকার করেন।

এর আগে টস হেরে ব্যাট করতে নেমে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ২১৬ রান সংগ্রহ করে বাংলাদেশ। দলের পক্ষে তামিম ইকবাল করেন ৭৬ রান। সাকিব আল হাসান করেন ৫১ রান।
বাকিদের মধ্যে দুই অঙ্কের ঘরে রান করেন মুশফিকুর রহিম (১৮), সানজামুল ইসলাম (১৯) ও মুস্তাফিজুর রহমান (১৮)। ইনিংস শেষে রুবেল হোসেন অপরাজিত থাকেন ৮ রান করে। জিম্বাবুয়ের পক্ষে গ্রায়েম ক্রেমার ৪টি, কাইল জারভিস ৩টি, সিকান্দার রাজা ১টি ও টেন্ডাই সাতারা ১টি করে উইকেট নেন।

আজ চারটি উইকেট নেয়ার মাধ্যমে ওয়ানডে ক্রিকেটে ১০০টি উইকেটের মালিক হয়েছেন গ্রায়েম ক্রেমার। ১০৫ বলে ৭৬ রান করার সুবাদে ম্যান অব দ্য ম্যাচের পুরস্কার পেয়েছেন ওপেনার তামিম ইকবাল।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত