প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

বেতন তুলেন ১৩ হাজার, বাড়ি ৪ কোটি টাকার

ডেস্ক ‍রিপোর্ট: দুর্নীতির দায়ে আটক শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত কর্মকর্তা (পিও) মো. মোতালেব হোসেন প্রতিমাসে বেতন তুলতে পারেন মাত্র ১৩ হাজার ৮৮ টাকা। অথচ রাজধানীর পশ্চিম ধানমন্ডিতে মোহাম্মদপুরের বসিলা ব্রিজের কাছে তৈরি করছেন বাড়ি, যার ব্যয় কমপক্ষে সাড়ে চার কোটি টাকা। নির্মাণাধীন সেই বাড়ি তিনি মাঝে-মধ্যে দেখতে যেতেন। স্থানীয়রা বলছেন, প্রাইভেট কারে চড়েই সেখানে যেতেন মোতালেব হোসেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বিভাগের প্রশাসন শাখা ও সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা গেছে, ১৯৯৯ সালের ১৭ নভেম্বর শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে স্টেনো-টাইপিস্ট হিসেবে যোগ দেন মো. মোতালেব হোসেন। এরপর স্টেনোগ্রাফার পদে পদোন্নতি পান তিনি। দ্বিতীয়বার পদোন্নতি পান শিক্ষামন্ত্রীর ব্যক্তিগত সহকারী হিসেবে। এই পদটি ১৯৯৭ সালে ব্যক্তিগত কর্মকর্তা হিসেবে আপগ্রেড করে সরকার, পদটির বেতন হয় দশম গ্রেডে। দ্বিতীয়বার পদোন্নতির পর থেকে দ্বিতীয় শ্রেণির সরকারি কর্মকর্তা হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন তিনি।

সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা যায়, নিয়ম অনুযায়ী সবগুলো টাইমস্কেল পেয়েছেন মোতালেব, পেয়েছেন সিলেকশন গ্রেডও। ধাপে ধাপে বেতন বেড়েছে তার ১৮ বছরের চাকরি জীবনে। মন্ত্রীর পিও হিসেবে নিযুক্ত রয়েছেন ২০১৬ সালের ৩০ নভেম্বর থেকে।

মন্ত্রণালয়ের হিসাব শাখা থেকে জানা গেছে, বর্তমানে মো. মোতালেব হোসেনের মূল বেতন ২৮ হাজার ১০০ টাকা। চিকিৎসা ও সন্তানদের লেখাপড়া বাবদ ভাতা ও অন্যান্য ভাতাসহ তার মোট বেতন ৩০ হাজার ৬০০ টাকা। এর মধ্যে ঋণের ছয় লাখ টাকা বাবদ প্রতিমাসে পরিশোধ করেন ১২ হাজার টাকা। সরকারি বাসায় থাকার কারণে বাড়িভাড়ার ভাতাও পান না। প্রতিমাসে তিনি নিট বেতন তোলেন ১৩ হাজার ৮৮ টাকা। অথচ এই বেতন পেয়েও রাজধানীতে প্রায় সাড়ে চার কোটি টাকা খরচ করে বাড়ি তৈরি করছেন তিনি।

মোতালেব হোসেনের নির্মাণাধীন বাড়িটির উত্তর পাশের প্লটের মালিক স্থানীয় মাদ্রাসার অধ্যক্ষ আতাউল্লাহ। তিনি জানান, ২০১৪ সালে একই সময় জমি কিনেছেন তারা। তিনি বলেন, ‘মোতালেব হোসেনের বাড়িটি তৈরি করতে এখন পর্যন্ত ব্যয় হয়েছে আনুমানিক দেড় কোটি টাকা। বাড়ির কাজ শেষ করতে আরও কমপক্ষে এক কোটি টাকা খরচ করতে হবে।’ জায়গার দাম মিলিয়ে বাড়ির পেছনে মোট খরচ কমপক্ষে সাড়ে চার কোটি টাকা বলে জানান তিনি।

আতাউল্লাহ ও স্থানীয়রা জানান, এই এলাকায় এক কাঠা জমির দাম ৬০ থেকে ৭০ লাখ টাকা। সেই হিসাবে তিন কাঠা জমির দাম ন্যূনতম এক কোটি ৮০ লাখ টাকা। বাড়ি নির্মাণের খরচ আড়াই থেকে তিন কোটি টাকা হলে বাড়ির মোট খরচ সাড়ে চার কোটি টাকার কম হবে না।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত