প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অন্ধকার মোচনে জ্ঞান ও শিক্ষাই জাগরণের শক্তি : ব্যারিস্টার নওফেল

ডেস্ক রিপোর্ট : বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ব্যারিস্টার মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল বলেছেন, ধর্ম ও শিক্ষার সাথে সংস্কৃতিচর্চা মনুষ্যত্বকে জাগ্রত করে। সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জ্ঞানের প্রতীক সরস্বতী দেবীর আরাধনায় অবশ্যই মনুষ্যত্বকে বিকশিত করবো।

সোমবার চট্টগ্রামের প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের বাণী অর্চনা সংসদের দেবী’র আরাধনা অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন।

নওফেল বলেন, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে জ্ঞানের আলোক শিখা ছড়াতে একটি সংস্কৃতি বান্ধব পরিবেশ আবশ্যক। মনে রাখতে হবে সুন্দর সংস্কৃতিচর্চা অজ্ঞানতা-মৌলবাদ ও জঙ্গিবাদ নির্মূলে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখতে পারে। অন্ধকার মোচনে জ্ঞান ও শিক্ষাই জাগরণের শক্তি। একটি অসাম্প্রদায়িক, গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে প্রয়াস অব্যাহত রেখেছেন এতে ধর্ম-দলমত-নির্বিশেষে সকলের সহযোগে প্রতিষ্ঠিত এই বাংলাদেশকে রক্ষা করতে হবে। লক্ষ্য করছি, একাত্তরের পরাজিত শক্তি ধর্মের নামে এদেশকে আবারও পাকিস্তান বানাতে চায়। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধ থাকি এই অপশক্তি কখনো বাঙালি জাতিসত্তার অস্তিত্বকে বিপন্ন করতে পারবে না।

তিনি আরো বলেন, ধর্মাচারণ লোক দেখানো আনুষ্ঠানিকতা নয়, এটা আবেগ-অনুভূতির ব্যাপার। তাই ধর্মকে নিয়ে যারা ব্যবসা করছে তারা মানবতার শত্রু। আশাকরি নতুন প্রজন্ম এব্যাপারে সচেতন হয়ে প্রকৃত ধর্ম ও মানবতার জয়গানে মুখরিত হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উদ্যোক্তা এ.বি.এম. মহিউদ্দিন চৌধুরী’র কনিষ্ঠ পুত্র বোরহানুল হাসান চৌধুরী সালেহীন, বাণী অর্চনা পরিষদের আহ্বায়ক অধ্যাপক সৌমিত্র চৌধুরী, প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের ইংরেজি বিভাগের চেয়ারম্যান ড. শাহাদাত হোসেন, ডেপুটি রেজিষ্ট্রার খোরশেদ আলম প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে পূজা মণ্ডপে শিক্ষার্থীদের দেবীর অঞ্জলি গ্রহণে উপস্থিত ছিলেন প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. অনুপম সেন, প্রফেসর ড. মুহীত-উল-আলমসহ শিক্ষক ও শিক্ষার্থীগণ। বাণী অর্চনায় প্রিমিয়ার বিশ্ববিদ্যালয়ে জিসি ক্যাম্পাসে দিনভর সাংস্কৃতিক ও ধর্মীয় সংগীতানুষ্ঠান পরিবেশিত হয়।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত