প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

অক্সফাম ইন্ডিয়ার প্রতিবেদন
নরেন্দ্র মোদির আমলে ভারতে সম্পদের অসম বণ্টন হয়েছে

আশিস গুপ্ত, নয়াদিল্লি: ২০১৪ সালে ভারতের সাধারণ নির্বাচনে ঝড় তুলেছিলো নরেন্দ্র মোদির স্লোগান ‘সবকা সাথ-সবকা বিকাশ’। যার অর্থ হলো, সবাইকে সঙ্গে নিয়ে-প্রত্যেকের জন্য বিকাশ। আর ওই স্লোগান দেশের মানুষকে এতটাই সম্মোহিত করেছিলো যে ব্যালট বাক্সে দুহাত তুলে নরেন্দ্র মোদির দলবিজেপিকে আশীর্বাদ করেছিলেন ভোটাররা।

শতাব্দী প্রাচীন কংগ্রেসকে ক্ষমতাচ্যুত করে প্রধানমন্ত্রী হয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদি। শুধু তাই নয়, সংসদে বিরোধী দলের মর্যাদা পেতে প্রয়োজনীয় সংখ্যার সাংসদও জিতে আসতে পারেনি কংগ্রেসের। এসবই এখন ইতিহাস। ঝড় তোলা সেই স্লোগানের কি পরিণতি গত তিন বছর আট মাসে ?

একটি আন্তর্জাতিক সমীক্ষা বলছে ,ভারতে প্রধানত বিকাশ হয়েছে ১শতাংশ মানুষের। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমলে দেশে সম্পদের অসম বণ্টন হয়েছে । মানে ধনী আরও ধনী হয়েছে। তাদের হাতেই দেশের সম্পদ জমা হচ্ছে।

অক্সফাম ইন্ডিয়ার রিপোর্ট অনুযায়ী, গত বছর দেশে উৎপাদিত সম্পদের ৭৩ শতাংশই কুক্ষিগত হয়েছে মাত্র এক শতাংশের হাতে। বলার অপেক্ষা রাখে না, এই এক শতাংশের মধ্যে নেই সাধারণ জনগণ । আরও ভয়াবহ হলো, ৬৭ কোটি গরিব ভারতীয়ের হাতে এসেছে মাত্র এক শতাংশ সম্পদ।

রিপোর্ট অনুযায়ী দেশের সবচেয়ে ধনী এক শতাংশের হাতে ২০১৭ সালে ২০.‌৯ লক্ষ কোটি টাকার সম্পদ বেড়েছে। যা দেশের ২০১৭–১৮ সালের কেন্দ্রীয় সরকারের মোট বাজেটের সমান।

বিশ্বের সঙ্গে তুলনা করে ভারতের অবস্থা ‘‌ভাল’‌ বলে জানাচ্ছে ওই সমীক্ষা। কারণ, গত বছর বিশ্বের উৎপাদিত মোট সম্পদের ৮২ শতাংশ চলে গিয়েছে এক শতাংশ ধনীর হাতে। আর ৩৭০ কোটি মানুষের কোনও সম্পদ বাড়েনি। ২০১৬ সালে সম্পদের বণ্টনের দিক দিয়ে ভারতের পরিসংখ্যান অনেকটাই আশানুরুপ ছিল না। এক শতাংশ ধনীর হাতে জমা পড়েছিল ৫৮ শতাংশ সম্পদ। সারা বিশ্বের হারের থেকে যা ছিল অনেক বেশি।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বশেষ

সর্বাধিক পঠিত