প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

ইয়েমেনকে বাঁচাতে ৩ বিলিয়ন ডলার চায় জাতিসংঘ

রাশিদ রিয়াজ : গৃহযুদ্ধ বিধ্বস্ত ইয়েমেনের অন্তত ২২ মিলিয়ন মানুষকে বাঁচাতে জরুরি ভিত্তিতে ৩ বিলিয়ন ডলার সাহায্য চেয়েছে জাতিসংঘ। সদস্য দেশগুলোর কাছে এ সহায়তা চেয়ে বিশ্বসংস্থাটি বলেছে, যুদ্ধ, দারিদ্র, খাদ্য সংকট ও রোগ প্রতিরোধ করতে না পারলে ইয়েমেনের এসব মানুষকে বাঁচিয়ে রাখা সম্ভব হবে না। আল-আরাবি

মানবেতর অবস্থায় দেশটির এসব মানুষকে বাঁচাতেই জাতিসংঘ এ সাহায্য চেয়েছে। ইয়েমেনের বন্দরগুলোতে অবরোধ আরোপ করে রেখেছে সৌদি জোট। এরফলে ক্ষুধার্ত ও পীড়িত লাখ লাখ ইয়েমেনবাসীর কাছে ত্রাণ পৌঁছানো সম্ভব হচ্ছে না। দুর্ভিক্ষময় পরিস্থিতি ও কলেরায় আক্রান্ত হয়ে হাজার হাজার মানুষ ইতিমধ্যে মারা গেছে।

এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের সাহায্য সংস্থা ওসিএইচএ বলেছে, এক কোটিরও বেশি মানুষ ইয়েমেনে জরুরি খাদ্য ও ওষুধ সংকটে পড়ে মৃত্যু থেকে বাঁচার চেষ্টা করছে। বিশেষ করে শিশুরা প্রবল দুর্দশা ও বঞ্চনার মধ্যে পড়েছে। কুড়ি লাখ শিশু স্কুলে যেতে পারছে না। ১৮ লাখ শিশু যাদের বয়স ৫ বছরের কম তারা অপুষ্টিতে ভুগছে, ৪ লাখ শিশু জরুরি চিকিৎসা না পেলে মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়বে।

জাতিসংঘের অনুমোদন ছাড়া সৌদি আরবের নেতৃত্বে ইয়েমেনের ওপর চাপিয়ে দেওয়া যুদ্ধে এপর্যন্ত ১০ সহ¯্রাধিক মানুষ মারা গেছে যাদের অধিকাংশই বেসামরিক ব্যক্তি। ২০১৫ সালে ইয়েমেনের প্রেসিডেন্ট আব্দ রাব্বু মানসুর হাদি ক্ষমতাচ্যুত হওয়ার পর পালিয়ে সৌদি আরব চলে যান। সৌদি সরকার তাকে পুনরায় ইয়েমেনের ক্ষমতায় বসাতে চায় এবং হুতি বিদ্রোহিদের বিরুদ্ধে এ যুদ্ধে সৌদি জোট সবধরনের সহায়তা দিয়ে যাচ্ছে।

ইয়েমেনে কলেরায় ১০ লাখ মানুষ আক্রান্ত হবার পর অন্তত ২২’শ মানুষ মারা গেছে বলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে। আশি লাখেরও বেশি মানুষ দুর্ভিক্ষের কবলে পড়ার অপেক্ষায় রয়েছে। আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থাগুলো এপর্যন্ত ইয়েমেনের জন্যে ১.৬৫ বিলিয়ন ডলার সহায়তা দিয়েছে। গত সপ্তাহে ইয়েমেনের কেন্দ্রীয় ব্যাংকে জরুরি অর্ সাহায্য হিসেবে ২ বিলিয়ন ডলার পাঠিয়েছেন সৌদি বাদশাহ সালমান।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত