প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

মেয়র আইভীকে কেবিনে স্থানান্তর

প্রতিবেদক: নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীর শারীরিক অবস্থার উন্নতি ঘটায় করোনারি কেয়ার ইউনিট থেকে কেবিনে স্থানান্তর করা হয়েছে। ২ দিন পর তাকে রিলিজ দেয়া যেতে পারে বলে জানিয়েছেন ল্যাবএইড হাসপাতালের মুখপাত্র সাইফুর রহমান লেনিন।

রোববার বেলা ১১টায় তাকে হাসপাতালের ৬০১ নম্বর কেবিনে স্থানান্তর করা হয়। ল্যাবএইড হাসপাতালের মুখপাত্র সাইফুর রহমান লেনিন দুপুর খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

লেনিন জানান, তিনি (আইভী) ভালো আছেন। দুদিন পর তাকে রিলিজ দেয়া যেতে পারে।

শনিবার (২০ জানুয়ারি) রাতে ঢাকার ল্যাবএইড হাসপাতালে প্রেস ব্রিফিংয়ে ল্যাবএইড হাসপাতালের হৃদরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. বরেণ চক্রবর্তী বলেন, শনিবার দ্বিতীয় দফা সিটিস্ক্যানে মস্তিষ্কে মৃদু রক্তক্ষরণস্থলে আর কোনো সমস্যা দেখা যায়নি। সমস্যা বৃদ্ধির আশঙ্কাও নেই। তার এখন বিশ্রাম প্রয়োজন। আইভীকে দেয়া ওষুধের ডোজ কমিয়ে আনা হয়েছে। আগামী দু-তিন দিন পর তাকে ছুটি দেয়া হতে পারে।

এর আগে আইভীকে দেখতে বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিমসহ অনেকে হাসপাতালে ছুটে যান।

গেল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার দিকে নারায়ণগঞ্জ নগর ভবনে থাকা অবস্থায় অসুস্থ হয়ে পড়েন আইভী। তাৎক্ষণিকভাবে নারায়ণগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে নেয়া হয় তাকে। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ঢাকায় চিকিৎসা গ্রহণের পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাৎক্ষণিকভাবে অ্যাম্বুলেন্সে করে তাকে ঢাকায় নেয়া হয়।

গেল মঙ্গলবার নারায়ণগঞ্জ শহরে হকার ইস্যু নিয়ে মঙ্গলবার চাষাঢ়ায় হকার ও এমপি শামীম ওসমানের অনুসারীদের সঙ্গে মেয়রের লোকজনদের ব্যাপক সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে। এ সময় উভয় গ্রুপের লোকজনের মধ্যে দফায় দফায় ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়। এতে সাংবাদিকসহ অর্ধশতাধিক মানুষ আহত হয়। সূত্র: আরটিভি

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত