প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

আফগানিস্তানে মার্কিন বিমানরুট বন্ধের কথা ভাবছে পাকিস্তান

আনন্দ মোস্তফা: সাম্প্রতিক সময়ে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের কিছু বিস্ফোরক মন্তব্যের জের ধরে যুক্তরাষ্টের সাথে তার একসময়কার ঘনিষ্ট মিত্র পাকিস্তানের সম্পর্কের চরম অবনতি হয়েছে। ট্রাম্প রাষ্ট্রীয় মদদে জঙ্গি পালনের অভিযোগে পাকিস্তানকে দেওয়া অর্থ সহায়তা বন্ধ ঘোষণা করার পর দক্ষিণ এশীয় দেশটি পাল্টা ব্যবস্থা নেবার কথা ভাবছে।

সম্প্রতি প্রকাশিত একটি রাজনৈতিক বিশ্লেষণমূলক পত্রিকার সূত্রে জানা যায়, আফগানিস্তানের বিমানপথ বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে পাকিস্তান। এমনটা হলে আফগানিস্তান যুদ্ধে সবচেয়ে বড় অসুবিধার মুখে পড়বে যুক্তরাষ্ট্র।

চারিদিকে স্থলবেষ্টিত আফগানিস্তানের প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে পাকিস্তান, ইরানসহ মদ্ধ এশিয়ার আরো তিনটি দেশ। ২০০১ সালে যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান যুদ্ধ শুরুর পর আরব সাগরের ঘাঁটি থেকে পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করে বিমান ও ড্রোন হামলা চালিয়েছে।এখনো আফগানিস্তানে যুক্তরাষ্ট্রের সকল সামরিক কর্মকান্ড পরিচালিত হয় পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহার করে।

ফলে পাকিস্তান আফগানিস্তানে প্রবেশের বিমানপথ বন্ধ করে দিলে দেশটিতে মার্কিন অভিযানের মেরুদণ্ড ভেঙ্গে যাবে।

পাকিস্তান এমন পদক্ষেপ নিলে কী করা যায় তাই ভাবছে যুক্তরাষ্ট্র। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক মার্কিন কর্মকর্তা বলেছেন, ‘এরপরও যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানে রসদ সরবরাহের জন্য বিকল্প পথ খুঁজছে।’ ওই প্রশাসনিক কর্মকর্তা বলেন, পাকিস্তান রুট বন্ধ করে দিলেও যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তানে তাদের বাহিনীর কাছে রসদ পৌঁছাতে পারবে, যদিও এটা খুব কঠিন হবে।’ সাউথ এশিয়ান মনিটর

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত