প্রচ্ছদ

সর্বশেষ খবর :

‘এখনকার পুলিশ, ১০ বছর আগের পুলিশ এক নয়’

মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধি: ১০ বছর আগের পুলিশ, আর প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আমলের পুলিশ এক নয় বলে মন্তব্য করেছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল। তিনি বলেছেন, এখনকার পুলিশ জনগণের বন্ধু। এরা জনগণের জন্য জীবন বিসর্জন দিতে জানে

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখান উপজেলার রাজদিয়া অভয় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব কথা বলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কাঙ্ক্ষিত অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। এখানে মুসলমান-হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান সবাই যে যার ধর্ম নির্বিঘ্নে পালন করতে পারছে।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বপ্ন দেখেন, স্বপ্ন বাস্তবায়নও করেন। তিনি চ্যালেঞ্জ করে বলেছিলেন, বাংলাদেশকে বদলে দিবেন। আস্তে আস্তে তিনি তাঁর সব কথা পূরণ করেছেন। যতদিন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হাতে থাকবে দেশ, ততদিন পথ হারাবে না বাংলাদেশ।

শতবর্ষ পূর্তি উদযাপন কমিটির সভাপতি স্থানীয় সরকারের সাবেক সচিব মো. আজহারুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তৃতা করেন মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানা, জেলা পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম, সিরাজদিখান উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মহিউদ্দিন আহমেদ, সাবেক সচিব রেজাউল করীম, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) তানবীর মোহাম্মদ আজিম, বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সভাপতি নাজমুল আলম খান, সাবেক সভাপতি আব্দুল কুদ্দুস ধীরন প্রমুখ।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, দেশ মাতৃকার টানে পুলিশ জঙ্গি দমন করছে। দেশের বাইরে বিদেশেও আজ পুলিশ সুনাম অর্জন করছে।

আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল অনুষ্ঠানে মুন্সীগঞ্জের জেলা প্রশাসক সায়লা ফারজানার স্বামী পুলিশের এন্টি টেররিজম ইউনিটের (পিএটিইউ) উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মো. মনিরুল ইসলাম প্রসঙ্গে কথা বলেন। মন্ত্রী বলেন, ‘আপনারা জেনে খুশি হবেন তাঁর (সায়লা ফারজানা) স্বামী জঙ্গিবাদ দমনের জন্য একটা উজ্জ্বল নক্ষত্র বাংলাদেশ পুলিশের। তাঁকে মনির হিসেবেই সবাই চিনে। তিনি কাউন্টার টেররিজম নিয়ে এখন ওইখানে অবস্থান করছেন। সফলভাবে জঙ্গি দমনের জন্য অব্যাহত প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন।’

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘মো. জায়েদুল আলম, পুলিশ সুপার, মুন্সীগঞ্জ। তিনিও অল্প দিন ধরে আসছেন। আপনাদের মুখেই তাঁর প্রশংসা শুনলাম। পুলিশ সুপার কিংবা পুলিশের প্রশংসা শুনলে আমার ভালোই লাগে। কারণ আমি সব সময় এখন পুলিশদের প্রশংসা আশা করি। আমি সব সময় দাঁড়িয়ে বলি যে ১০ বছর আগে যে পুলিশ দেখেছেন জননেত্রী শেখ হাসিনার আমলের পুলিশ এক নয়। এরা জনগণের বন্ধু। এরা জনগণের জন্য জীবন বিসর্জন দিতে জানে। এরা একাত্তরে স্বাধীনতার জন্য অস্ত্র ধরেছে। এখনো জঙ্গি দমনের জন্য যথেষ্ট পরিশ্রম করছে।’

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজদিয়া অভয় পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়কে জাতীয়করণ করার জন্য শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদের কাছে সুপারিশ করার আশ্বাস দেন।

এক্সক্লুসিভ রিলেটেড নিউজ

সর্বাধিক পঠিত